যেসব লক্ষণ দেখে বুঝবেন চা-কফি খাওয়া কমাতে হবে

যেসব লক্ষণ দেখে বুঝবেন চা-কফি খাওয়া কমাতে হবে

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:৪১ ২ অক্টোবর ২০২১  

চা-কফি অতিরিক্ত খাওয়া ক্ষতিকর। ছবি: সংগৃহীত

চা-কফি অতিরিক্ত খাওয়া ক্ষতিকর। ছবি: সংগৃহীত

ঘুম থেকে উঠে সুন্দর একটি দিন শুরু করতে এক কাপ চা বা কফির জুড়ি নেই। আবার এমন অনেকেই আছে যারা এক কাপ চা বা কফি ছাড়া দিনই শুরু করতে পারেন না। অনেকের আবার কাজ করতে হলে ঘণ্টায় ঘণ্টায় চা-কফি প্রয়োজন হয়। কেউ বা আড্ডার ফাকে এক বারে বেশ কয়েক কাপ চা-কফি খেয়ে ফেলেন। 

বলা চলে, বাঙালি জীবনের অতি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ এই দু’টি পানীয়। কোথাও গিয়ে অন্তত এক কাপ চা না পেলেই মন খারাপ হয় অনেকের। কিন্তু জানেন কি, এই সাধারণ দু’টি পানীয়ও বেশি মাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে সমস্যায় ফেলতে পারে?

গবেষণা বলছে, অতিরিক্ত চা-কফি খাওয়া মানেই শরীরে যাচ্ছে অনেকটা পরিমাণ ক্যাফিন। তা থেকে নানা ধরনের সমস্যা হতে পারে। তাই কতটা চা বা কফি খাওয়া হচ্ছে, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। বিশেষ করে যদি কয়েকটি উপসর্গ দেখা দেয়, তবে সঙ্গে সঙ্গে কমাতে হবে প্রতিদিনের চা-কফির পরিমাণ।

চলুন জেনে নেয়া যাক কোন কোন উপসর্গ বলে দেবে যে প্রয়োজনের অতিরিক্ত চা- কফি খাওয়া হয়ে যাচ্ছে- 

>> শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

>> পাশাপাশি, বিরক্তি এবং উদ্বেগও বাড়তে পারে ঘন ঘন চা বা কফি খেলে।

>> শরীরে ক্যাফিনের মাত্রা চরম পর্যায়ে পৌঁছলে বুকে ব্যথা এবং বমি ভাবও হতে পারে।

>> অনেকের আবার অত্যধিক চা-কফি খাওয়ার ফলে সব সময়েই দেহের তাপমাত্রা বেড়ে যায়।

>> অতিরিক্ত মাত্রায় ক্যাফিন শরীরে প্রবেশ করলে অনেকের আচরণেই অস্থিরতা দেখা দিতে পারে। ফলে এই বিষয়টি খেয়াল রাখতে বলছেন গবেষকরা।

উপরের যেকোনো একটি সমস্যা হলেও নিজের প্রতিদিনের চা-কফির পরিমাণের বিষয়ে সচেতন হওয়া জরুরি। অনেকেই দিনে ২ বা ৩ কাপ চা-কফির বেশি না খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন, তবে আসলে পরিমাণটি ব্যক্তি বিশেষে আলাদা হয় বলেই মত গবেষকদের। তাই এমন কোনো সমস্যা দেখলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়ার পাশাপাশি চা বা কফির পরিমাণেও নজর দেয়া জরুরি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ