যে সেতু দেখে আঁতকে ওঠে বুক

যে সেতু দেখে আঁতকে ওঠে বুক

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৪৯ ২৪ জুন ২০২২  

এশিমা ওহাসি সেতু। ছবি: সংগৃহীত

এশিমা ওহাসি সেতু। ছবি: সংগৃহীত

রোলার কোস্টার দেখেছেন? আধুনিক অ্যামিউজমেন্ট পার্কে যেমনটা থাকে। যে রোলার কোস্টারে চেপে বসলেই আতঙ্কে হাত-পা ঠাণ্ডা হয়ে যায়। আজ রোলার কোস্টারের কথা নয়। তবে রোলার কোস্টারে মতোই একটা সেতুর কথা বলব।

জাপানের এশিমা ওহাসি সেতু। বিশ্বের অন্যতম ভয়ানক সেতু বলা হয় এটিকে। এ সেতুটিকে দেখতেও রোলার কোস্টারের মতোই। বিশ্বের সবচেয়ে খাড়া সেতুগুলোর মধ্যেও এটি পড়ে।

জাপানের লেক নাকাওমি নদীর ওপর তৈরি এই সেতুটি সাকাইমিনাতো ও মাৎসু শহরকে যুক্ত করেছে। দূর থেকে দেখে আতঙ্ক লাগলেও সামনে থেকে দেখলে ঠিক ততোটা ভয়ানক নয়! সুউচ্চ এই সেতুটিতে উঠতে হয় যেমন ধীর গতিতে, তেমনই নামতেও হয় অত্যন্ত দ্রুত গতিতে৷

এশিমা ওহাসি সেতু। ছবি: সংগৃহীত

এই সেতু এতটাই খাড়াই যে, চালকরা সেতু পেরোনোর সময় রীতিমতো আতঙ্কে থাকেন। ৪৪ মিটার উঁচু এই সেতু।  এটি বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম রিজিড ফ্রেম সেতু। তবে সেতুটি মাত্র ১ দশমিক ৪৪ কিমি লম্বা, প্রস্থ ১১ দশমিক ৩ মিটার।

টেলিফোটো লেন্স দিয়ে ছবি তুলে খুব কাছ থেকে দেখলে আরো ভয়ানক দেখায় সেতুটিকে। প্রতিদিনের যাতায়াতের জন্যই নির্মিত এটি। একে পর্বতাকৃতি সেতুও বলা হয়।

খাড়াই সেতুটি নিয়ে অ্যাডভেঞ্চারপ্রেমীদের উৎসাহেরও শেষ নেই। সেতুটি এক দিকে ৫ দশমিক ১ শতাংশ। অন্য দিকে ৬ দশমিক ১ শতাংশ কাত হয়ে আছে। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের আশ্চর্য কেরামতিতেই তা সম্ভব।

ডেইলি বাংলাদেশ/কেবি