পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে মিলন ছাড়াই বাচ্চার জন্ম দেয় এই মাছ

পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে মিলন ছাড়াই বাচ্চার জন্ম দেয় এই মাছ

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৫১ ২৩ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৫:৫৫ ২৩ জানুয়ারি ২০২১

ঈগল প্রজাতির রে মাছ

ঈগল প্রজাতির রে মাছ

সৃষ্টির শুরু থেকেই এই নিয়ম চলে আসছে। স্ত্রী- পুরুষের মিলনেই নতুন প্রাণের জন্ম। একমাত্র স্ত্রী প্রাণীদের ক্ষেত্রেই সন্তান জন্ম দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে। তবে সি হর্স বা সামুদ্রিক এই প্রাণীর কথা ভিন্ন। এখন পর্যন্ত পাওয়া একমাত্র প্রাণী এটি যেটি পুরুষ হয়েও সন্তানের জন্ম দিতে পারে।

প্রকৃতির সমস্ত রহস্যের উন্মোচন কেউ করতে পারেনি। তবে এবার আরো এক ঘটনায় বিশ্ব অবাক হয়েছে। নিউ জিল্যান্ডের অকল্যান্ডের একটি খবর বিজ্ঞানীদেরও অবাক করেছে। কোনো পুরুষ সঙ্গীর সংস্পর্শ ছাড়াই গর্ভবতী হয়েছে এখানকার অ্যাকুরিয়ামে থাকা দুটি রে ফিস। 

অকল্যান্ডে একটি অ্যাকুরিয়ামে ওই দুটি মাছকে রাখা হয়েছিলবিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, দুবছর ধরে সেই রে ফিসগুলো কোনো পুরুষ সঙ্গীর সংস্পর্শে আসেনি। তবুও তারা মা হয়েছে। কী করে সম্ভব! বিজ্ঞানীদের মধ্যেও বিভিন্ন যুক্তির ভিত্তিতে তর্ক-বিতর্ক করছেন। দুটি মাছ পুরুষ সঙ্গী ছাড়াই মা হয়েছে। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই দুটি মাছ ঈগল রে প্রজাতির।

আরো পড়ুন: শ্রী যেমনই হোক,গানের পাখির দাম আকাশ ছোঁয়া

পুরুষ সঙ্গী ছাড়াই সন্তান জন্ম দিয়েছে মাছ দুটি অকল্যান্ডে একটি অ্যাকুরিয়ামে ওই দুটি মাছকে রাখা হয়েছিল। দুটি মাছ দুটি করে বাচ্চার জন্ম দিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের অনেকে বলছেন, শেষবার পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে মিলনের পর তারা শরীরে স্পার্ম সঞ্চয় করে রেখেছিল। তবে এই থিওরি ঠিক নয় বলে দাবি করেছেন আরেক দল বিজ্ঞানী। নিউ জিল্যান্ডের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ওয়াটার অ্যান্ড অ্যাটমোসফেরিক রিসার্চ-এর কর্মী এডেল ডিউটিলয় জানিয়েছেন, ব্যাপারটা পার্টিনাংগনেসিস হতে পারে। অর্থাৎ, একই মাছে শরীরে পুরুষ ও স্ত্রী, দুই লিঙ্গের বৈশিষ্ট্য বর্তমান। এমন ঘটনা অবশ্য প্রথমবার লক্ষ্য করেছেন বিজ্ঞানীরা। এমনিতে ঈগল রে প্রজাতির মাছ আক্রমণাত্মক হয়। 

সূত্র: ওইওনিউজ 

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে