প্রবাসীদের নিষ্প্রাণ ঈদ

প্রবাসীদের নিষ্প্রাণ ঈদ

কবির আল মাহমুদ, স্পেন প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৫৪ ২৪ মে ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

এ বছর ঈদ উদযাপনের বাস্তবতা পাল্টে গেছে। বিশ্বজুড়ে মুসলমানদের জন্য এমন বিবর্ণ ঈদ আগে কখনো আসেনি। এবারের ঈদ কষ্ট ও বেদনার মধ্যে শুধু প্রার্থনার। করোনার এই দিনে এমনই ব্যতিক্রমী এক ঈদ হচ্ছে স্পেনে। 

স্পেনে ৭ জুন পর্যন্ত রয়েছে লকডাউন। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে সবাইকে। কোথাও হয়নি ঈদের জামাত। ঘরে বসেই পড়তে হয়েছে নামাজ। দশজনের বেশি একত্রিত হতে পারেননি কেউ। 

এবার ঈদের অনাবিল আনন্দের আবহ নেই। খুশির জোয়ারও নেই কোথাও। সবকিছু গেছে থমকে। বিশ্বে হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হচ্ছে প্রতিদিন। প্রচুর মানুষ হাসপাতালে রোগ যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন। স্বজন হারানোর বেদনা সর্বত্র। এই বৈশ্বিক মহামারি পৃথিবী থেকে সব আনন্দ তুলে নিয়ে গেছে। কিন্তু তবুও ঈদ এসেছে।

যারা দূর প্রবাসে রয়েছেন, রোজা, তারাবি, ইফতার পার্টি সবকিছু হলেও কোনোভাবেই তা দেশের মতো নয়। দেশে যেমন রোজা শুরু হলেই একটা উৎসবের আমেজ তৈরি হয়। কেনাকাটা, ঈদের বোনাস, লাইটিং, ঈদ ফ্যাশন, পত্রিকার ঈদ সংখ্যা, টিভিতে ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠান, ঈদ পুনর্মিলনী, সিনেমা হলে নতুন সিনেমা মুক্তি কত কী। প্রবাসে এসব কিছুই নেই। প্রবাসে ঈদের দিনটা ছুটি হবে কিনা এই নিয়েও চলে গবেষণা। দেশে যখন সবাই ঈদ উৎসবে মেতে থাকবে তখন প্রবাসীদের থাকতে হয় কর্মস্থলে। 

আনন্দ-বেদনার ঈদের নাম হচ্ছে প্রবাসের ঈদ। অনেক সীমাবদ্ধতার মধ্যেও নিজের মতো করে আনন্দ খুঁজে নেয় প্রবাসীরা। তারাও ঈদের নামাজ পড়ে, কোলাকুলি করে, বেড়াতে যায় বন্ধুর বাড়িতে। কিন্তু তারা প্রিয়জন থেকে অনেক অনেক দূরে। তাদের শূন্যতা কিছু দিয়ে পূরণ হওয়ার নয়।

এই করোনার দিনগুলোতে আমাদের আবার স্মরণ করিয়ে দিল ‘সাধ্যের বাইরে যে সাধ তা কোন কালে পূরণ হওয়ার নয়, সাধ্যের মধ্যেই আছে সব সত্য।’ আসুন সবাইকে সঙ্গে নিয়ে বাঁচি। আর সেটাই হোক করোনা আক্রান্ত পৃথিবীতে ঈদ আনন্দ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে