নায়িকা শিমু হত্যা: সন্দেহের তীর জায়েদ খানের দিকে

নায়িকা শিমু হত্যা: সন্দেহের তীর জায়েদ খানের দিকে

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:০৬ ১৮ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১১:১৯ ১৮ জানুয়ারি ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নিখোঁজের একদিন পর কেরানীগঞ্জ থেকে চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুর মরদেহ উদ্ধার উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় রক্তমাখা গাড়িও।

এ ঘটনায় সোমবার রাতেই শিমুর স্বামী নোবেলসহ দুজনকে আটক করা হয়েছে। তবে পরিবারের অভিযোগ ভিন্ন হলেও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অভিনেতা জায়েদ খানকে সন্দেহ করছেন শিমুর সহকর্মীরা।

শিমুর সহকর্মী প্রডিউসার ফিরোজ শাহী বলেন, কেন ইউটিউবে গিয়ে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েছিল শিমু, এ কারণে জায়েদ খান শিমুর নামেও মামলা দিয়েছিল।

একইভাবে অভিনেত্রী তাহমিনা হোসেন বেবি বলেন, ‘জায়েদ খান সব পারবে। একটা সিটের জন্য তিনি সব পারবে। না হয় এরকম কেন হলো বলেন...। তুই ‍তুকারি কেন করতে যাবে।’

এছাড়া অভিনেত্রী সাদিয়া মির্জা বলেন, ‘শিমুর অস্বাভাবিক মৃত্যু, এটা মেনে নেয়ার মতো না। আমরা এটা মানব না। ১৮৪ জন (চলচ্চিত্র রাজনীতির সঙ্গে জড়িত) আমরা যারা আছি, তারা কি একার জন্য লড়াই করছি!’

এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘তিন-চারটা ছেলেমেয়ে যাদের নাম বলতে হয়- ফিরোজ শাহী ও সাদিয়া মির্জাসহ আরো কয়েকজন। এর মধ্যে সাদিয়া মির্জা নোংরামি শুরু করেছে। ইউটিউবে গেলে দেখা যায় ‘আমাকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছে জায়েদ খান’ উল্লেখ করে সে ছড়িয়ে দিচ্ছে, আসলে এসব নোংরামির অবসান হওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।’

সোমবার সকাল ১০টার দিকে কেরানীগঞ্জের হযরতপুর ব্রিজের কাছে শিমুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি রোববার সকাল ১০টা থেকে আজ পর্যন্ত নিখোঁজ ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর