অবশেষে আলোচিত সেই সাহসী দৃশ্য নিয়ে মুখ খুললেন কিয়ারা

অবশেষে আলোচিত সেই সাহসী দৃশ্য নিয়ে মুখ খুললেন কিয়ারা

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৪৯ ২৬ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১১:৫৩ ২৬ অক্টোবর ২০২০

কিয়ারা আদবানী

কিয়ারা আদবানী

কিয়ারা আদবানীর সেই সাহসী দৃশ্য নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা ছিলো শীর্ষে। এই দৃশ্যের কারণে অনেকেই তার সাহসের প্রশংসা করেছেন। আবার অনেকেই এমন অঙ্গভঙ্গির জন্য তার সমালোচনাও করেছেন। কিয়ারা স্বভাবসিদ্ধ হাসিমুখে সবই মেনে নিয়েছেন। তবে এতদিন চুপ থাকলেও অবশেষে মুখ খুললেন কিয়ারা। বললেন সবটাই।  

কিয়ারা বলেছেন, আমি জানতাম না ভাইব্রেটর জিনিসটা আসলে কী! কিন্তু একজন অভিনেতা বা অভিনেত্রীকে দক্ষতার সঙ্গে যেকোনো অভিনয় ফুটিয়ে তুলতে হয়। তাই পরিচালক করণ আমাকে এমন একটা দৃশ্যের কথা বলতেই গুগলে জেনে নিয়েছিলাম, ভাইব্রেটর আসলে কী জিনিস!

স্বামী তার যুবতী স্ত্রীর শারীরিক চাহিদা পূরণে অক্ষম। আর তাই স্ত্রী ভাইব্রেটর-এর মাধ্যমে তার শারীরিক চাহিদা মিটিয়ে নেন। এই ছিলো সিকোয়েন্স। আর সেখানেই ভাইব্রেটর ব্যবহার করে যৌন তৃপ্তির অভিনয় করতে হয়েছিল কিয়ারাকে। তিনি সেই দৃশ্যে অসাধারণ অনুভূতি ফুটিয়ে তুলেছিলেন। কাজটা সহজ ছিলো না। সেটা মেনে নিলেন কিয়ারা।

কিয়ারা বললেন, আমার মা-বাবাকে আগেই জানিয়েছিলাম, এরকম একটা সিনেমায় অভিনয় করব। তাই বাড়ির সবাই আমার এমন অভিনয়ের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলো। আর তারা ব্যাপারটাকে হালকাভাবেই নিয়েছে। আমার দিদা তখন আমাদের বাড়িতে ছিলো। তিনি এমন দৃশ্য দেখেছিলেন কার্যত পাথরের মতো শক্ত হয়ে। তবে সবাই কেউই আমার অভিনয় নিয়ে আপত্তি করেনি। আসলে সবাই জানে আমি অভিনেত্রী। আর এটাই আমার কাজ।

কিয়ারা আরো বলেন, আমি ভেবেছিলাম, করণ জোহর পুরো ব্যাপারটা বুঝিয়ে দেবে। তবে সেরকম কিছুই হয়নি। এই দৃশ্যের জন্য হোমওয়ার্ক সারতে হয়েছে সেটে। তবে সঠিক অনুভূতি ফুটিয়ে তোলা একটা চ্যালেঞ্জ ছিলো বটে!

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ