রিয়াকে ‘ইউজ’ করতেন সুশান্ত, নিজেই স্বীকার করলেন অভিনেত্রী

রিয়াকে ‘ইউজ’ করতেন সুশান্ত, নিজেই স্বীকার করলেন অভিনেত্রী

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩৯ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:৪১ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

সুশান্ত সিং রাজপুত এবং রিয়া চক্রবর্তী

সুশান্ত সিং রাজপুত এবং রিয়া চক্রবর্তী

নিজেকে ইউজ করতে বলে নিজের জামিনের আবেদনপত্রে জানিয়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের গার্লফ্রেন্ড রিয়া চক্রবর্তী। শুধু তাই নয় তার ভাই শৌভিক এবং বাকি কর্মচারীদেরও প্রয়োজনে কাজে লাগিয়েছেন অভিনেতা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। 

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুতে মাদক যোগ সামনে আসার পর গত ৯ সেপ্টেম্বর রিয়াকে গ্রেফতার করে নার্কোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)। মঙ্গলবার সেই মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় নতুন করে আদালতে আবেদন জানিয়েছিল এনসিবি। আর তাতেই মাদক মামলা সংক্রান্ত বিশেষ আদালত এনডিপিএস (নার্কোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস) আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত রিয়ার জেল হেফাজতের মেয়াদ বাড়ায়।

এর পরেই বম্বে হাইকোর্টে জামিনের আবেদন জানান রিয়া ও তার ভাই শৌভিক। ৪৭ পাতার সেই আবেদনপত্রে রিয়া লেখেন, উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ পাওয়া না গেলেও উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তাকে ফাঁসানো হচ্ছে। সুশান্তের বিরুদ্ধেও মুখ খোলেন রিয়া। আবেদনপত্রে তিনি লেখেন, নিজের মাদকের অভ্যাস জিইয়ে রাখতে কাছের মানুষদের ব্যবহার করেছিল সুশান্ত।

রিয়া আরো লিখেছেন, সুশান্ত জীবিত থাকলে মাদকযোগে তিনিও গ্রেফতার হতেন। শাস্তি হিসেবে হয় সুশান্তের জেল হত অথবা তিনি জামিনে ছাড়া পেয়ে যেতেন। 

জামিনের আবেদনপত্রে রিয়া এ-ও লেখেন, গোটা তদন্তে একবারের জন্যও সুশান্তের ফোন কল, মেসেজ, চ্যাট সামনে রাখা হয়নি। তিনি নিজে কীভাবে গাঁজা যোগাতেন সেটি বের না করে তার বন্ধু, প্রেমিকা এবং বাকি কর্মচারীদের দোষারোপ করা হয়েছে। রিয়ার বক্তব্য, সুশান্তের জন্য তার কথামতো তিনি কয়েকবার মাদক কিনেছেন। তবে এছাড়া আর কোনো অন্যায় তিনি করেননি। নিজে মাদক নেননি বা মাদক সরবরাহতেও তিনি যুক্ত নন। যদিও এনসিবি-র অভিযোগ, রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই মুম্বাইয়ের মাদকচক্রের সক্রিয় সদস্য।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস