ববি শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রথম এডি আবিদ, যেভাবে হলো স্বপ্নপূরণ

ববি শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রথম এডি আবিদ, যেভাবে হলো স্বপ্নপূরণ

ববি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২৪ ৪ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ১৭:১৯ ৪ আগস্ট ২০২২

জি. এম আবিদ আল হাসান। ছবি: সংগৃহীত

জি. এম আবিদ আল হাসান। ছবি: সংগৃহীত

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে সর্বপ্রথম কোনো শিক্ষার্থী বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক (এডি) হিসেবে নিয়োগ পেলেন। নিয়োগপ্রাপ্ত ওই শিক্ষার্থীর নাম জি. এম আবিদ আল হাসান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন।

জানা যায়, তিনি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগ থেকে ২০১২-১৩ সেশনে স্নাতক এবং ২০১৭-১৮ সেশনে স্নাতকোত্তর শেষ করেন। আবিদ আল হাসান খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানার এক নম্বর ধামালিয়া ইউনিয়নের চেঁচুড়ি গ্রামে বাস করেন। কর্মজীবনে তিনি এর আগে উত্তরা ব্যাংকে চাকরি করেছেন।

স্বপ্নপূরণ প্রসঙ্গে আবিদ হাসান বলেন, আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি আমার বাবা-মা, শ্রদ্ধেয় শিক্ষক ও সব শুভাকাঙ্ক্ষীদের প্রতি। স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, কর্মপরিবেশ, পদোন্নতি, সামাজিক স্বীকৃতি সবকিছু মিলিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘সহকারী পরিচালক’ পদটি সর্বদাই চাকরিপ্রার্থীদের পছন্দের শীর্ষে অবস্থান করে। 

স্বপ্নপূরণ প্রসঙ্গে আবিদ বলেন, বিবিএ, এমবিএ শেষ করে আমি খুব দ্রুতই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলাম যে, আমি ব্যাংকিং সেক্টরেই আমার ক্যারিয়ার গড়তে চাই। এরপর বৈশ্বিক মহামারী করোনার আঘাতে প্রায় দুই বছর সব নিয়োগ পরীক্ষা বন্ধ থাকলেও আমি আমার লক্ষ্য অর্জনে সর্বদা চেষ্টা করে গেছি। অবশেষে সাফল্য ধরা দিল।

জি. এম আবিদ আল হাসান। ছবি: সংগৃহীত

তিনি আরো বলেন, লক্ষ্য যাদের ব্যাংকিং সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়া তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, লক্ষ্য স্থির রেখে পরিকল্পনামাফিক পড়ালেখা করতে হবে। সঠিক প্লানিং ছাড়া এখন সফলতা পাওয়া প্রায় অসম্ভব ব্যাপার। কঠোর পরিশ্রমের কোনো বিকল্প নেই। ম্যাথ, এনালিটিকাল, ফ্রি হ্যান্ড রাইটিং নিয়মিত চর্চা করতে হবে। ইংরেজি সংবাদপত্র পড়া, পরিবার বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে ইংরেজিতে কথা বলার চেষ্টা করা, ডিবেটিং প্রভৃতি ব্যাপক সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

এ বিষয়ে একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান মো. রাকিবুল ইসলাম বলেন, আবিদ আমাদের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী তার এই সাফল্যে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় এবং আমাদের বিভাগকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। তার এই সাফল্যে আমরা আনন্দিত ও গর্বিত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মো. বদরুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়টি শিক্ষা ও সহশিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে এবং শিক্ষার্থীরা শিক্ষাবান্ধব হওয়ার কারণে আমরা এ সুফল পাচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয়টি অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে যার ফলাফল আমরা দেখতে পাচ্ছি দেশে-বিদেশে এবং বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখছে আমাদের ছাত্রছাত্রীরা।

প্রসঙ্গত, ৩ আগস্ট (বুধবার) বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক গোলাম মোস্তফা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ১৮২ জনকে সহকারী পরিচালক পদে সুপারিশ করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/কেবি