ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা

ঢাবি প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:২৪ ১৭ এপ্রিল ২০২২  

রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে নেতৃবৃন্দ জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে এ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ।

রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে নেতৃবৃন্দ জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে এ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ।

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। 

রোববার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে নেতৃবৃন্দ জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে এ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। 

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিৎ চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান হৃদয়, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমেদসহ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় বলেন, ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে মুজিবনগর সরকার পরিচালনাকারী জাতীয় চার নেতা, সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা, ৩০ লাখ শহীদ, দুই লাখ নির্যাতিত মা- বোন ও তৎকালীন অবরুদ্ধ বাংলায় স্বাধীনতার স্বপক্ষের আপামর জনগণের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। এ দিবসটির পথ ধরেই বাঙালি সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দিকনির্দেশনা অনুসরণ করে মুজিবনগর সরকারের যোগ্য নেতৃত্ব ও রণকৌশল মুক্তিযুদ্ধকে সফল পরিসমাপ্তির দিকে নিয়ে যায়। 

তিনি আরও বলেন, মুজিবনগর দিবসে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে লক্ষ্য ও স্বপ্ন নিয়ে বাংলাদেশকে স্বাধীন করে অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভিত তৈরি করে গেছেন, সেই পথ ধরেই প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত, অসাম্প্রদায়িক সোনার বাংলা গড়ে তুলবো। 

সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ঐতিহাসিক মুজিবনগর সরকারের ৫১ বছর আজ। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে অনন্য এইদিন সকালে মুজিবনগরে আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণের মাধ্যমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ঐতিহাসিক মুজিবনগর সরকারের দিক নির্দেশনা ও বাঙালি জাতির মহান নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশিত পথে এগিয়ে চলে বাঙালির মুক্তিযুদ্ধ। সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে মুজিবনগর সরকার সঠিক নির্দেশনায় পরিচালিত হয়েছিল বলেই আমরা মাতৃভূমিকে হানাদার মুক্ত করতে পেরেছিলাম। 

তিনি আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে অসাম্প্রদায়িক, ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও উন্নত-সমৃদ্ধ ‘সোনার বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখেছিলেন, সব আশু ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে ঐক্যবদ্ধভাবে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কার্যকর ভূমিকা রাখবে। 

আজ থেকে ৫১ বছর আগে ১৯৭১ সালের এই দিনে মেহেরপুরের বৈদ্যনাথতলা গ্রামের আম্রকাননে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করে। পরে বৈদ্যনাথতলাকে মুজিবনগর হিসেবে নামকরণ করা হয়। মুজিবনগর সরকারের নেতৃত্বে ৯ মাসের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম