কিউএস র‌্যাংকিংয়ে দেশসেরা তিন বিশ্ববিদ্যালয়

কিউএস র‌্যাংকিংয়ে দেশসেরা তিন বিশ্ববিদ্যালয়

ঢাবি প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:০৮ ৬ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৬:৩৫ ৬ মার্চ ২০২১

৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাংকিং তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডস (কিউএস)

৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাংকিং তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডস (কিউএস)

বিষয়ভিত্তিক বিশ্বসেরা ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাংকিং তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডস (কিউএস)। এই তালিকায় স্থান পেয়েছে বাংলাদেশের তিন বিশ্ববিদ্যালয়। 

বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) দেশসেরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় (এনএসইউ)।

কিউএস সংস্থাটি বিশ্বের মোট ৮৫টি দেশের ১ হাজার ৪৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে গবেষণা করে। এতে বাংলাদেশের এ তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ভিত্তিক আলাদা আলাদা ক্যাটাগরিতে তালিকায় সেরা ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে স্থান পায়। 

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) সংস্থাটির ওয়েবসাইটে বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে। বিশ্বব্যাপী বিশ্ববিদ্যালয় র‍্যাঙ্কিং তৈরির ক্ষেত্রে অন্যতম সংস্থা এই কিউএস ইউনিভার্সিটি র‍্যাঙ্কিং। বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং তৈরিতে এটি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। 

র‌্যাংকিংটি তৈরি করা হয়েছে আলাদা দুটি ক্যাটাগরিতে। প্রধান বিষয় (ব্রড সাবজেক্ট এরিয়া) ক্যাটাগরিতে ৫টি বিষয় রয়েছে। এসব হচ্ছে যধাক্রমে– ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি, সোস্যাল সাইন্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট, আর্টস এন্ড হিউমেনিটিস, লাইফ সাইন্স এন্ড মেডিসিন এবং ন্যাচার সাইন্স। এছাড়া নির্দিষ্ট বিষয় (স্পেসিফিক সাবজেক্ট) ক্যাটাগরিতে ৫১ টি আলাদা আলাদা বিষয়ে র‌্যাংকিং তৈরি করেছে। 

‘কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংস বাই সাবজেক্ট ২০২১’ শীর্ষক এই র‌্যাংকিং এবার ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (ব্রড সাবজেক্ট এরিয়া) দেশসেরা বিদ্যাপীঠ বুয়েট। যার অবস্থান বিশ্বসেরা র‌্যাংকিংয়ে ৩৪৭ তম। আর সোস্যাল সাইন্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (ব্রড সাবজেক্ট এরিয়া) ক্যাটাগরিতে দেশসেরা উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে ঢাবির অবস্থান ৪৫১ থেকে ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে। তবে সুনির্দিষ্টভাবে কত নাম্বরে তা উল্লেখ করেনি সংস্থাটি। 

পাশাপাশি নির্দিষ্ট বিষয় (স্পেসিফিক সাবজেক্ট) ক্যাটাগরিতে বিজনেস অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে ঢাবি ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ৩৫১ থেকে ৪০০ তম। তবে সুনির্দিষ্টভাবে কত নাম্বারে তা উল্লেখ করেনি কিউএস। 

এছাড়া নির্দিষ্ট বিষয় (স্পেসিফিক সাবজেক্ট) ক্যাটাগরিতে কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিষয়ে বুয়েটের অবস্থান ৩০১ থেকে ৩৫০ তম, ঢাবির অবস্থান ৪০১ থেকে ৪৫০ তম এবং নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ৬০১ থেকে ৬৫০ তম। 

এবার র‌্যাংকিংয়ে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও ম্যাসাচুসেট্স ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি) বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে স্থান পেয়েছে। অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় এ দুটি প্রতিষ্ঠানের এক ডজনেরও বেশি বিষয় সেখানে স্থান করে নিয়েছে। 

র‌্যাংকিং তৈরি করতে কিউএস প্রতিবছর কয়েকটি মানদণ্ডের ভিত্তিতে পৃথিবীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে গবেষণা করে বার্ষিক একটি র‍্যাঙ্কিং প্রকাশ করে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর গবেষণা, উদ্ভাবন, চাকরিতে স্নাতকদের কর্মক্ষমতা, প্রাতিষ্ঠানিক সাফল্য, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাফল্য, আন্তর্জাতিক গবেষণা নেটওয়ার্ক, গবেষণা প্রবন্ধের সাইটেশন, পিএইচডি ডিগ্রিধারী শিক্ষক-কর্মকর্তাদের সংখ্যা, আন্তর্জাতিক শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অনুপাত, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শিক্ষার্থী বিনিময়ের হার বিচার করেই এ তালিকা করা হয়। 

এর আগে গতবছর দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। এশিয়ার র‍্যাংকিংয়ে এটির অবস্থান ছিল ১৩৪তম। যেখানে বুয়েট ছিল ১৯৯ তম অবস্থানে। গতবছরের ধারাবাহিকতায় এ বছরও একমাত্র বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে তালিকায় স্থান পায় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি (এনএসইউ)। 

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত কিউএস র‌্যাংকিং ২০০৪ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা সাময়িকী টাইমস হায়ার এডুকেশনের সঙ্গে যৌথভাবে ‘সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের’ তালিকা প্রকাশ করছিল; ২০১০ সালে আলাদা হয়ে যায় কিউএস৷

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম