প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি, যেসব তথ্য চেয়েছে ডিপিই

প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি, যেসব তথ্য চেয়েছে ডিপিই

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০১:৩২ ২৫ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ০৭:৪৮ ২৫ নভেম্বর ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অনলাইনে প্রাথমিক শিক্ষক বদলি কার্যক্রম আগামী বছর থেকে শুরু হচ্ছে। বদলি কার্যক্রম নিশ্চিত করতে ই-প্রাইমারি সিস্টেমে সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য চেয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)।

মঙ্গলবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (আইএমডি) মো. বদিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে শিক্ষকদের কাছে ওই তথ্য চাওয়া হয়।

এদিকে চিঠিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের যাবতীয় তথ্য বলতে বিদ্যালয়ের মৌলিক তথ্য, ভূমি, ভবন, কক্ষ, আসবাবপত্র, নিরাপদ পানির ব্যবস্থা, টয়লেট সুবিধা, আইসিটি শিক্ষক ও অন্যান্য সুবিধার কথা বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ওয়েবসাইটে অভ্যন্তরীণ ই-সেবা মডিউলের ই-প্রাইমারি সিস্টেম সফটওয়ারের মাধ্যমে সব পুরাতন সরকারি ও সদ্য জাতীয়করণ করা এবং পরীক্ষণ বিদ্যালয়ের যাবতীয় তথ্যাবলী ও শিক্ষকদের ব্যক্তিগত সব তথ্য এবং ২০২০ সালের শিক্ষার্থীর সংখ্যা বিনা ব্যর্থতায় আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে সঠিকভাবে হালনাগাদ করতে উপজেলা শিক্ষা অফিসারদের নির্দেশ দেয়া হলো।

চিঠিতে আরো বলা হয়, শিক্ষক বদলির আবেদন প্রক্রিয়া ২০২১ সাল থেকে অনলাইনে নিষ্পন্ন করা হবে। ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেমে সব বিদ্যালয়ের অনুমোদিত পদ ও কর্মরত শিক্ষক তথ্য হালনাগাদ না থাকলে শিক্ষকরা বদলি হতে পারবেন না। আর কোনো প্রশিক্ষণেও অংশ নিতে পারবে না। ই-মনিটরিং কার্যক্রমে উক্ত শিক্ষকের তথ্য প্রদর্শিত হবে না। ই-প্রাইমারি সিস্টেমে তথ্য এন্ট্রি সংক্রান্ত কোনো সমস্যা সমাধানের জন্য ই-প্রাইমারি সিস্টেমের নির্দেশিকা ও বদলি/অবসর/পিআরএল নির্দেশিকা ডাউনলোড করে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন।

চিঠিতে কোনো টেকনিক্যাল সমস্যা সমাধানের জন্য E-primary School Sestem Help group Facebook page বা অধিদফতরের ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট ডিভিশনে (আইএমডি) ই-মেইলে ([email protected]) যোগাযোগ করার অনুরোধ করা হয়েছে। তথ্য হালনাগাদে যা করতে হবে-

১) নির্দিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তার নিজ দায়িত্বে বিদ্যালয়ের মৌলিক তথ্য, ভৌত তথ্যাবলী, শিক্ষকদের ব্যক্তিগত তথ্যাবলী এবং শ্রেণিভিত্তিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা এন্ট্রি নিশ্চিত করবেন এবং হালনাগাদ করবেন।

২) কোনো শিক্ষা আন্তঃবিভাগীয় বদলি হয়ে থাকলে বিভাগীয় অফিস, তার ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড এর মাধ্যমে ই-প্রাইমারি সিস্টেমে লগইন করে আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে বদলিকৃত এবং যোগদানকৃত শিক্ষকদের তথ্য সিস্টেমে আপডেট নিশ্চিত করবেন।

৩) কোনো শিক্ষক আন্তঃবিভাগীয় জেলা বদলি হয়ে থাকলে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস তার ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড এর মাধ্যমে ই-প্রাইমারি সিস্টেমে লগইন করে আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে বদলিকৃত এবং যোগদানকৃত শিক্ষকদের তথ্য সিস্টেমে আপডেট নিশ্চিত করবেন।

৪) কোনো শিক্ষক আন্তঃউপজেলা বদলি হয়ে থাকলে উপজেলা শিক্ষা অফিস তার ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড এর মাধ্যমে ই-প্রাইমারি সিস্টেমে লগইন করে আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে বদলিকৃত এবং যোগদানকৃত শিক্ষকদের তথ্য সিস্টেমে আপডেট নিশ্চিত করবেন।

৫) বিভাগ বদলির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট পদায়ন করা বিভাগীয় অফিস অধিদফতরের আইএমডি বিভাগকে পদায়ন করা শিক্ষকদের তথ্য দিয়ে সহায়তা করবেন। আইএমডি ই-প্রাইমারি সিস্টেমে তার যোগদান করা বিদ্যালয়ে এন্ট্রি বা আপডেট নিশ্চিত করবেন।

৬) নতুন নিয়োগ হওয়া শিক্ষকরা তাদের যাবতীয় তথ্য প্রধান শিক্ষকের সহায়তায় তার পদায়ন করা বিদ্যালয়ের বিপরীতে এন্ট্রি নিশ্চিত করবেন।

৭) কোনো শিক্ষক পিআরএল/অবসর বা চাকরি থেকে অব্যাহতি বা মারা গেলে সংশ্লিষ্ট উপজেলা শিক্ষা অফিসার শিক্ষক পদায়ন অপশন থেকে তাকে পিআরএল/ অবসর চাকরি থেকে অব্যাহতি বা অন্য অপশন দিয়ে ডাটা আপডেট করবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর