গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে অব্যাহতির পাঁচদিনেও স্বপদে বহাল দেলোয়ার

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে অব্যাহতির পাঁচদিনেও স্বপদে বহাল দেলোয়ার

গবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:০৮ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:১০ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

গণ বিশ্ববিদ্যালয় ও গণস্বাস্থ্য মেডিকেলের ওয়েবসাইটে স্বপদে বহাল তবিয়তে আছেন তিনি। 

গণ বিশ্ববিদ্যালয় ও গণস্বাস্থ্য মেডিকেলের ওয়েবসাইটে স্বপদে বহাল তবিয়তে আছেন তিনি। 

ভুয়া সার্টিফিকেট নিয়ে চাকরি পাওয়া থেকে শুরু করে যৌন হয়রানি কোনো কিছুতে কম যাননি দেলোয়ার হোসেন। সবশেষে তিনি সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রার পদ থেকে সদ্য অব্যাহতিপ্রাপ্ত হলেন।  

এতোসবের পরও গণ বিশ্ববিদ্যালয় ও গণস্বাস্থ্য মেডিকেলের ওয়েবসাইটে স্বপদে বহাল তবিয়তে আছেন তিনি। 

বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত ওয়েবসাইটে তাকে স্বপদে বহাল দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন গবিয়ানরা। এছাড়াও ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রারের আলাদা কোনো বিজ্ঞপ্তিও দেয়া হয়নি। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, উনাকে এতসব অপকর্মের পরে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তাকে এখনও কি করে ওয়েবসাইটে রাখা হয়? এখানে কিছু ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছি। আশা করবো, শিগগিরই সম্ভব তার নাম দুই ওয়েবসাইট থেকে মুছে দেয়া হবে।

এ বিষয়ে কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি (রুটিন দায়িত্ব) ডা. লায়লা পারভীন বানুর সঙ্গে পরপর তিনদিন যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

গত মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) এক ছাত্রীর সঙ্গে রেজিস্ট্রারের অশ্লীল, কুরুচিপূর্ণ ২৬ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের একটি ফোনালাপ ফাঁস হয়। এ ঘটনার পর থেকে ক্যাম্পাসে তোলপাড় শুরু হয়। এরপর ১২ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের এক জরুরি সভায় তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম