রাতারাতি পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৩০ টাকা

রাতারাতি পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৩০ টাকা

মো: আব্দুল্লাহ আল মামুন ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৪ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:০৩ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

এক রাতের ব্যবধানে কেজিতে প্রায় ৩০ টাকা বেড়েছে দেশি পেঁয়াজের দাম। মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর অন্যতম বড় পাইকারি বাজার কারওয়ান বাজার, মিরপুরসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায় প্রতি পাল্লা (১ পাল্লা= ৫ কেজি) পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকায়। ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের দামও এক রাতের মধ্যে বেড়েছে। এক পাল্লা বিক্রি হচ্ছে ২৯০ থেকে ৩০০ টাকায়। 

মিরপুর-১৪ নম্বরের কচুক্ষেতে বাজারে গিয়েও দেখা যায় একই চিত্র। ১ কেজি পেঁয়াজ ৯০ টাকা চাইছেন বিক্রেতা। জানতে চাইলে সব বিক্রেতাই একই কথা বলছেন- ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছে। ভারত থেকে পেঁয়াজ আসবে না তাই দাম বেশি।

ইসমাইল হোসেন নামের এক বেসরকারি কর্মকর্ত বলেন, দাম আরো বাড়তে পারে তাই একটু বেশি নিলাম। বিক্রেতারা প্রতিকেজি ৯০ টাকা দাম চাচ্ছেন। কিন্তু আমি ১০ কেজি নেয়ায় ৮৫ টাকা করে দিয়েছি।

তিনি বলেন, গতকাল রাতেও পেঁয়াজের দাম ছিলো ৬০ টাকা কেজি। কিন্তু তখন না নিয়ে ভুল করেছি। এক রাতের ব্যবধানেই ২৫ থেকে ৩০ টাকা বেশি দিয়ে কিনতে হয়েছে।

কচুক্ষেতে বাজার। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

গতকাল পেঁয়াজ রফতানি আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধের ঘোষণা করেছে ভারত। গতকাল সোমবার দিনভর দেশের তিনটি প্রধান স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আসেনি। পরে রাতে ভারত সরকারের রফতানি বন্ধের নির্দেশনা দেশটির আমদানিকারকদের হাতে আসে। 

এ ঘটনার পর থেকেই গতকাল বিকেল থেকেই অস্থির হয়ে পড়ে রাজধানীর পেঁয়াজের বাজার। রাজধানীর বেশ কিছু বাজারে গতকাল বিকেলের পর থেকে পেঁয়াজ বিক্রি কার্যত বন্ধ হয়ে যায় বলে জানান ব্যবসায়ীরা। আর কারওয়ান বাজারের আড়তে বেলা ৩টার দিকে যে দেশি পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৫৬ টাকা ছিল, সন্ধ্যা ৭টায় তা ওঠে ৭০ টাকায়। আর একই বাজারে ৪২ টাকা কেজির ভারতীয় পেঁয়াজ রাত ১০টায় হয়ে যায় ৫৬ টাকা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/এমআরকে