নাতনির জন্য মাংস কিনে নিথর হয়ে বাড়ি ফিরলেন দাদা

নাতনির জন্য মাংস কিনে নিথর হয়ে বাড়ি ফিরলেন দাদা

দিনাজপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:২৯ ২৩ জুন ২০২২  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নাতনিকে নিয়ে হাটে মাংস কিনতে গিয়েছিলেন ৬০ বছর বয়সী আব্দুল জলিল। কিন্তু মাংস কিনে বাড়ি ফেরা হলো না তার। পথেই হারালেন প্রাণ। তবে ভাগ্যক্রমে বেঁচে আছে তার তিন বছর বয়সী নাতনি তুবা।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার হাবড়া আমবাগান মোড়ে পার্বতীপুর-ফুলবাড়ী আঞ্চলিক সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল জলিল উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ দর্গাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানায়, সকালে নাতনিকে নিয়ে বাইসাইকেলে পার্শ্ববর্তী হাবড়া হাটে মাংস কিনতে যান জলিল। ফেরার পথে উপজেলার হাবড়া আমবাগান মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত থেকে আসা একটি মোটরসাইকেল তাদের ধাক্কা দেয়। এতে দাদা-নাতনি সড়কে ছিটকে পড়লে জলিল গুরুতর আহত হন। এছাড়া মোটরসাইকেল আরোহী ২৪ বছর বয়সী ফেরদৌস রহমান ও তার স্ত্রী ১৮ বছরের দীপামণি আহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। তবে আশঙ্কাজনক অবস্থায় জলিলকে দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে কাওছার আলীর বরাত দিয়ে পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সুজয় কুমার জানান, নাতনির জন্য হাটে মাংস কিনতে যান তার বাবা। ফেরার পথে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় তিনি মারা যান। দুর্ঘটনার জন্য দায়ী মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে মোটরসাইকেল আরোহী দম্পতি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর