নদী পার হলেই শ্বশুর বাড়ি, হেলিকপ্টার নিয়ে আনলেন বউ

নদী পার হলেই শ্বশুর বাড়ি, হেলিকপ্টার নিয়ে আনলেন বউ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২৩:৩৫ ১৭ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ২৩:৩৯ ১৭ জানুয়ারি ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বর ও কনের বাড়ির মাঝে বুক চিরে আছে মধুসতি নদী। খেয়া পার হলেই বর যেতে পারবেন শ্বশুর বাড়ি। কিন্তু না; বউ আনবেন হেলিকপ্টারে! মাত্র ৩০০ মিটার দূরত্বের জন্য হেলিকপ্টার ভাড়া করে আলোচনায় এক তরুণ।

রোববার গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গঙ্গারামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

জানা গেছে, এ কাণ্ড ঘটিয়েছেন উপজেলার দক্ষিণ গঙ্গারামপুর গ্রামের তোয়াজ শেখের ছেলে ব্যবসায়ী মো. মিরাজ শেজ। মূলত বাবার ইচ্ছে অনুযায়ী এ তরুণ হেলিকপ্টারে নববধূকে আনতে যান। অন্যদিকে কনের উত্তর গঙ্গারামপুর গ্রামের আজাদ খোন্দকারের মেয়ে আফরিন আক্তার।

পাত্রের স্বজনরা জানান, বরযাত্রীর অনুষ্ঠানে যেতে রাজধানী থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকায় ভাড়ায় করা হয় হেলিকপ্টার। দুপুরের আগেই হেলিকপ্টারটি বরের বাড়ি দক্ষিণ গঙ্গারামপুর গ্রামের জুট মিল সংলগ্ন মাঠে অবতরণ করে।

জানা যায়, দুপুরে বর তার ভাই-বোনকে নিয়ে হেলিকপ্টারে করে কনের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন। দূরত্ব মাত্র ৩০০ মিটার দূরত্বে হলেও উড্ডয়ন সুবিধা ও অন্যান্য কারণে প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকা ঘুরে হেলিকপ্টারটি উত্তর গঙ্গারামপুর গ্রামের কনের বাড়ির পাশে অবতরণ করে। এ সময় হেলিকপ্টার দেখতে শত শত স্থানীয় মানুষের ভিড় জমে।

এ বিয়ের অনুষ্ঠানে গোহালা ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মাতুব্বর, সাবেক চেয়ারম্যান শফিকুল আলম মোল্লা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রিয়াজ মিনা, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এম মোশারফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শেখ ইকবাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে