বিয়ের ৬ মাসেই লাশ হলো তাছলিমা

বিয়ের ৬ মাসেই লাশ হলো তাছলিমা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৫৬ ১৪ জানুয়ারি ২০২২  

গৃহবধূ তাছলিমা খাতুনের লাশের পাশে স্বজনরা

গৃহবধূ তাছলিমা খাতুনের লাশের পাশে স্বজনরা

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় বিয়ের ৬ মাস না যেতেই তাছলিমা খাতুন নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। স্বামীর পরিবার বলছে- তাছলিমা আত্মহত্যা করেছেন, বাবার বাড়ির লোকজনের অভিযোগ- তাকে হত্যা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঐ উপজেলার উত্তর কয়ার ত্রিমোহনী গ্রামের স্বামীর বাড়ি থেকে তাছলিমা খাতুনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী বিজয় ও শ্বশুর আরিফুল ইসলাম পলাতক।

নিহত তাছলিমা খাতুন নন্দলালপুর ইউনিয়নের মাঠপাড়া গ্রামের ওকিলের মেয়ে।

তাছলিমার বাবা ওকিল জানান, ৬ মাস আগে ত্রিমোহনী গ্রামের কাঁচামাল ব্যবসায়ী বিজয়ের সঙ্গে তার মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাছলিমার ওপর মানুষিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন চালিয়ে আসছিল বিজয়ের বাবা, মা ও বোন। বৃহস্পতিবার বিকেলে খবর আসে তাছলিমা ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

তিনি বলেন, আমার মেয়ে অনেক আত্মবিশ্বাসী ছিল। সে আত্মহত্যা করতে পারে না। তার স্বামীর পরিবার নির্যাতন চালিয়ে তাকে হত্যা করেছে। এরপর নিজেদের বাঁচাতে আত্মহত্যা বলে প্রচার করছে। আমি তাদের শাস্তি চাই।

কুমারখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আকিবুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঐ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আপাতত অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর