চিকিৎসকের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা

চিকিৎসকের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:১১ ৫ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৯:১২ ৫ ডিসেম্বর ২০২১

২৫০ শয্যা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল। ফাইল ছবি

২৫০ শয্যা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল। ফাইল ছবি

চিকিৎসক সংকটে সিরাজগঞ্জ জেলা সদর ২৫০ শয্যা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হচ্ছে। মেডিকেল অফিসার, সিনিয়র কনসালটেন্ট, জুনিয়র কনসালটেন্টসহ ২৪টি চিকিৎসকের পদ শূন্য থাকায় রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, ৫৮টি চিকিৎসকের পদ থাকলেও মাত্র ৩৪ জন চিকিৎসক দিয়ে এই হাসপাতালের চিকিৎসা কার্যক্রম চলছে। এছাড়াও ৬৫টি তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীর পদও শূন্য রয়েছে। প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক না থাকায় বহি:বিভাগে চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। এতে বহির্বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার অভিযোগ করেও সুফল পাওয়া যাচ্ছেন না। 

চিকিৎসা নিতে আসা চর মালশাপাড়া গ্রামের শহিদুল  ইসলাম, রানীগ্রামের বেলী, চর মালশাপাড়ার সালেহা বেগম বলেন, অনেক সময় ধরে ডাক্তার দেখানোর জন্য বসে আছি। কিন্তু ডাক্তারের সিরিয়াল পেতে দেরি হচ্ছে। 

কামারখন্দের শ্যামপুর গ্রামের দিনমজুর সোলেমান জানান, হাসপাতাল থেকে ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী বিনামূল্যে ওষুধ দেওয়া হলেও অনেক সময় কোনো কোনো ওষুধ পাওয়া যায় না বলে অভিযোগ করেন।  

হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, হাসপাতালে ২৪ জন  ডাক্তার এবং  ৬৫ জন তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীর পদ খালি রয়েছে। ফলে চিকিৎসা কার্যক্রম কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে। এরই মধ্যে চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। চাহিদা অনুযায়ী চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া হলে এ সংকট থাকবে না বলে তিনি জানান ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে