জন্মের পরই কেটে ফেলল নবজাতকের মাথা, দেহ পড়েছিল নদীর তীরে

জন্মের পরই কেটে ফেলল নবজাতকের মাথা, দেহ পড়েছিল নদীর তীরে

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৫৩ ৫ ডিসেম্বর ২০২১  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় করতোয়া নদীর তীরের বালুর চর থেকে এক নবজাতকের মাথাবিহীন মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

শনিবার বিকেলে উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের কালিগঞ্জ খেয়াঘাট এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তবে এখনো পরিচয় মেলেনি নবজাতক ওই শিশুর।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ওসি হুমায়ন কবীর বলেন, করতোয়া নদীর তীরের বালুর চরে নবজাতক কন্যার মাথাবিহীন মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। তবে তার দেহ পেলেও মাথাটি এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে নবজাতকটির মাথা বিচ্ছিন্ন করে নদীর তীরে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মাথা কোথায় ফেলা হয়েছে তা বোঝা যাচ্ছে না।

ওসি আরো বলেন, শুক্রবার রাতের কোনো এক সময় নবজাতকটির জন্ম হয়। জন্মের পরপরই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে মাথা বিচ্ছিন্ন করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর