যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠানোয় স্বামীর কারাদণ্ড

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠানোয় স্বামীর কারাদণ্ড

ফেনী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:২০ ১৭ অক্টোবর ২০২১  

জেলা জজ আদালত, ফেনী

জেলা জজ আদালত, ফেনী

ফেনীতে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠানোর অভিযোগে স্বামীকে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। রোববার জেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. জাকির হোসাইন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত জহিরুল ইসলাম সুজন ফেনী শহরের বিরিঞ্চি তালতলা এলাকার বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি পলাতক।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১০ সালের ২৪ মে ফুলগাজী উপজেলার পশ্চিম বশিকপুরের মহিউদ্দিনের মেয়ে কহিনুর আক্তারকে বিয়ে করেন বিরিঞ্চি তালতলার বাসিন্দা জহিরুল ইসলাম সুজন। তাদের একটি ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে। প্রথম স্ত্রী থাকতেই দ্বিতীয় বিয়ে করেন তিনি। এরপর গত বছরের ১২ ডিসেম্বর ব্যবসা করার জন্য কোহিনুরের পরিবারের কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। সে টাকা না পেয়ে স্ত্রী-সন্তানকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন সুজন। ঐ ঘটনায় গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর সুজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তার প্রথম স্ত্রী। ঐ মামলায় চলতি বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি সুজনকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর আপসের শর্তে ৭ ফেব্রুয়ারি জামিনে মুক্তি পান তিনি।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোহাম্মদ জাকির হোসেন জানান, জামিনের পর আপস-মীমাংসা না করে পালিয়ে যান সুজন। এরপর আদালতে তার অনুপস্থিতিতে পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। রোববার শুনানি শেষে জহিরুল ইসলাম সুজনের অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন বিচারক।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর