স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি

স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৩৫ ১৩ অক্টোবর ২০২১  

জেলা জজ আদালত, শরীয়তপুর: ফাইল ফটো

জেলা জজ আদালত, শরীয়তপুর: ফাইল ফটো

শরীয়তপুরে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে চার বছর পর স্বামীকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে স্বামীকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বুধবার (১৩ অক্টোবর) বিকেল ৩টার দিকে বিচারক (জেলা জজ) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আব্দুস ছালাম খান এ আদেশ দেন। 

মৃত স্ত্রীর নাম রেশমা আক্তার। সে মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার মুজাফফরপুর হাজী ইউসুফ ঢালীর কান্দি গ্রামের বাদশা হাওলাদারের মেয়ে।

দণ্ডপ্রাপ্ত স্বামীর নাম নুরুল আমিন শেখ শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা ইউনিয়নের হারুন টুনি কান্দি গ্রামের হাশেম শেখের ছেলে।
 
মৃত রেশমা আক্তারের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের জুন মাসে রেশমার পরিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পাঁচ বছর পর ২০১৭ সালের ২ জুলাই যৌতুকের দাবিতে রেশমাকে হত্যা করেন স্বামী। ৩ জুলাই রেশমার ভাই ইয়ার হোসেন হাওলাদার জাজিরা থানায় হত্যা মামলা করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ঘটনার দিন রাতে স্ত্রী রেশমা আক্তারকে মা-বাবার কাছ থেকে যৌতুক হিসেবে চার লাখ টাকা এনে দিতে চাপ দেন স্বামী নুরুল আমিন শেখ। রেশমা তাতে অস্বীকৃতি জানালে স্বামী শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করেন। তখন রেশমা ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি মীর্জা হজরত আলী বলেন, সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামি নুরুল আমিন শেখকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। এ ছাড়া আসামির কাছ থেকে অর্থদণ্ড হিসেবে ২০ হাজার টাকা আদায় করে রেশমার মা-বাবার হাতে তুলে দিতে বলেছেন আদালত। মামলায় ৮ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি উপস্থিত ছিলেন না, তিনি পলাতক।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ