গোপন প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গভীর রাতে ভাবির সর্বনাশ করল দেবর

গোপন প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গভীর রাতে ভাবির সর্বনাশ করল দেবর

রাজবাড়ী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:০৫ ২ অক্টোবর ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দীর্ঘদিন ধরে গোপন প্রস্তাব দিচ্ছিলেন। কিন্তু কোনোভাবেই রাজি হচ্ছিলেন না ৩০ বছর বয়সী গৃহবধূ। তাই গলায় গামছা পেঁচিয়ে মাটিতে ফেলে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন। এমনই অভিযোগ উঠেছে ২৮ বছর বয়সী এসএম আহাদের বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে মামলাও করেছেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ।

ঘটনাটি রাজবাড়ীর। বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী সদর থানায় মামলাটি করেন ভুক্তভোগী নিজেই। তবে ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত আহাদ।

শনিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাজবাড়ী সদর থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন। অভিযুক্ত আহাদ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের গাবলা গ্রামের এসএম কবিরের ছেলে। সম্পর্কে ভুক্তভোগীর দেবর তিনি।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাকে গোপন প্রস্তাব দিচ্ছিলেন আহাদ। এতে রাজি না হলে তার ঘরের আশপাশে ঘোরাঘুরি করতেন তিনি। মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে যান গৃহবধূ। এ সময় ওত পেতে থাকা আহাদ তার গলায় গামছা পেঁচিয়ে মাটিতে ফেলে দেন। এতে তিনি মাথায় আঘাত পেয়ে পড়ে যান। এরপর তার মুখ আটকে ধরে ধর্ষণ করে আহাদ পালিয়ে যান। পরে গৃহবধূর চিৎকারে পরিবারের লোকজন এসে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার এসআই মেজবাহ উদ্দিন বলেন, ঘটনার পর থেকে আহাদ পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর