সচেতনতা সৃষ্টিতে হেঁটেই ৭০ কিলোমিটার

সচেতনতা সৃষ্টিতে হেঁটেই ৭০ কিলোমিটার

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৩০ ২১ জানুয়ারি ২০২১  

রিফাত জামিল রিয়াদ

রিফাত জামিল রিয়াদ

মানুষের কত রকমের ইচ্ছে থাকে। তবে সে ইচ্ছেটাকে কেউ মনের মধ্যে পুষে রাখেন, আবার কেউ তা বাস্তবে পরিণত করেন। তেমনি একজন ভ্রমণ পিপাসু তরুণ তার স্বপ্নের বাস্তব রূপদানে হেঁটৈই ৭০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে অনন্য নজির সৃষ্টি করেছেন।

ওই তরুণের নাম রিফাত জামিল রিয়াদ। তিনি সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মাটিকাটা গ্রামের আলী আকবরের ছেলে এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

জানা যায়, গত ১৭ জানুয়ারি দুপুর পৌনে ১২টায় এ জামিল রিয়াদ নিজের গ্রামের বাড়ি থেকে বের হন। ওইদিন রাত সোয়া ৭টার দিকে নেত্রকোনা সদরের বাংলাবাজারে এসে পৌঁছান। ওইদিন তার অতিক্রান্ত পথ ছিল ৩৫ কিলোমিটার।

পরদিন বিশ্রাম নিয়ে ফের শুরু হয় তার যাত্রা। ১৯ জানুয়ারি বেলা ১১টায় নেত্রকোনা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে রওনা করে ১৮ কিলোমিটার পথ হেঁটে শ্যামগঞ্জ বাজারে এসে দুপুরের খবার শেষে রওনা করেন ময়মনসিংহের উদ্দেশে। পরে আরো ১৭ কিলোমিটার পথ হেঁটে ময়মনসিংহের শম্ভুগঞ্জ এলাকায় পৌঁছান। ঘড়িতে তখন রাত ৭টা বাজে।

নেত্রকোনা থেকে ময়মনসিংহ আসার পথে তিনটি প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল তার। সেগুলো হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার করুন, গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান ও মাদককে না বলুন। রাস্তায় বেশ কয়েকজনকে মাস্ক বিতরণ করছেন তিনি। এছাড়াও পথে পথে বিভিন্ন এলাকায় তার বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা তাকে শুভেচ্ছাও জানান।

এই সাহসী পদক্ষেপ নিয়ে তার কাছে জানতে চাইলে রিফাত জামিল রিয়াদ বলেন, জীবনের বাস্তবতাকে দেখার খুব ইচ্ছে। মনে সাধ জেগেছে হেঁটে হেটে আমার দেশের গ্রাম বাংলাসহ সুন্দর সুন্দর নিদর্শনগুলো অবলোকন করার, তাই হাইকিং শুরু করে দিয়েছিলাম। এখন দেশের প্রতিটি জেলায় হেঁটে যাওয়ার ইচ্ছে আমার, সবধরনের মানুষের কাছে যেতে চাই, অনেক কিছু শিখতে চাই।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ