শীত নিবারণের আগুনে গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারল স্বামী-সৎ ছেলে

শীত নিবারণের আগুনে গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারল স্বামী-সৎ ছেলে

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩৬ ১৯ জানুয়ারি ২০২১  

উলিপুর থানা, কুড়িগ্রাম

উলিপুর থানা, কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের উলিপুরে শীত নিবারণের আগুনে গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও সৎ ছেলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মামলা করেছেন নিহতের মেয়ে নূর জাহান।

রোববার (১০ জানুয়ারি) রাতে ওই উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের যমুনা সরকারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আসামিরা হলেন- ওই গ্রামের ইউনুস আলী ও তার প্রথম পক্ষের ছেলে রফিকুল ইসলাম রফিক।

নিহত বেগনা বেগম ওই উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ফকির মোহাম্মদ ন্যালর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তার প্রথম পক্ষের মেয়ে নূর জাহান।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালে বেগনা বেগমকে বিয়ে করেন ইউনুস আলী। দুজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। বিয়ের পর থেকে প্রায়ই তাকে নির্যাতন করত ইউনুস ও রফিক। ১০ জানুয়ারি রাতে শীত নিবারণের জন্য বেগনা বেগম বাড়ির আঙিনায় আগুন পোহাচ্ছিলেন। ওই সময় সৎ ছেলে রফিক তাকে পেছন থেকে জাপটে ধরে। পরে তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয় স্বামী ইউনুছ আলী। এতে বেগনা বেগম দগ্ধ হলে তাকে ওই অবস্থায়ই বাড়িতে ফেলে রাখে তারা।

নিহতের মেয়ে নূর জাহান বলেন, আমরা পরদিন খবর পাই। পরে ছুটে গিয়ে আমার মাকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। মায়ের অবস্থার আরো অবনতি হলে সেখান থেকে ঢাকায় নিতে বলা হয়। ১৬ জানুয়ারি রাতে ঢাকায় নেয়ার পথে আমার মা মারা যান।

উলিপুর থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির জানান, ১৭ জানুয়ারি বেগনা বেগমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্ত শেষে ওইদিন সন্ধ্যায় তাকে বাবার বাড়িতে দাফন করা হয়।

ওসি আরো জানান, এ ঘটনায় সৎ বাবা ও সৎ ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নিহতের মেয়ে নূর জাহান। মামলাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর