জয়পুরহাটে ৭শ’ বছর পুরনো পরিত্যক্ত মসজিদে ফের আজান-নামাজ আদায়

জয়পুরহাটে ৭শ’ বছর পুরনো পরিত্যক্ত মসজিদে ফের আজান-নামাজ আদায়

জয়পুরহাট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৩২ ৩ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:১১ ৫ ডিসেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার পাঠানপাড়ায় ৭শ’ বছরের পুরনো পরিত্যক্ত মসজিদে পুনরায় আজান ও নামাজ শুরু হয়েছে। 

গত মঙ্গলবার জামিয়া ইসলামিয়া আজিজিয়া আনওয়ারুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা শামছুল হুদা খানের ইমামতিতে জোহরের নামাজ আদায়ের মাধ্যমে পুনরায় পরিত্যক্ত এ মসজিদে আজান ও নামাজ চালু হয়।

এ মসজিদে গত মঙ্গলবার প্রথম ইকামত দেন স্থানীয় আলেম ড. ইকলিমুর রেজা। আর ইমামতি করেন মাওলানা শামছুল হুদা খান।  

পাঠানপাড়ায় পরিত্যক্ত এ মসজিদটি আবাদের মূল উদ্যোক্তা ড. ইকলিমুর রেজা। এখন মসজিদ ও আশ-পাশের জমিজমা মালিকানা তার বাবা-চাচাদের মালিকানায় রয়েছে।

আরো পড়ুন >>> শম্পার পরিবারের সব দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

হাজার বছরের পুরনো মসজিদটির অবকাঠামো প্রায় ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। দীর্ঘ ৭শ' বছর পরিত্যক্ত থাকায় এটির ইটের গাঁথুনি খুলে খুলে পড়ছে। ধ্বংসপ্রায় মসজিদটির আঙ্গিনায় সামিয়ানা টানিয়ে গত মঙ্গলবার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় মুসল্লিরা নামাজ পড়েছেন।

মসজিদটি শত শত বছর ধরে পরিত্যক্ত ছিল। স্থানীয়দের ধারণা, প্রায় হাজার বছর আগে সুলতানি আমলে নির্মিত এ মসজিদ। মসজিদটির সামনে রয়েছে সান বাঁধানো পাকা ঘাট এবং প্রাচীন পুকুর। যা দেখে সহজেই অনুমান করা যায় যে, এখানে হয়তো কোনো নগরের অস্থিত্ব ছিল।

আরো পড়ুন >>> সড়কের পাশে কাতরাচ্ছিলেন রক্তাক্ত যুবক, এগিয়ে এলেন পথচারী 

স্থানীয় আলেম ড. ইকলিমুর রেজা ও দাঈ মুফতি জোবায়ের মসজিদে আজান ও নামাজের জন্য উদ্যোগ নিয়েছেন। তাদের কণ্ঠেই প্রথম ধ্বনিত হয় আল্লাহু আকবার ধ্বনি। শুরু হয় নামাজ।

পরিত্যক্ত থাকা ঐতিহাসিক এ মসজিদে আজান ও নামাজ শুরু হওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে খুশির আমেজ তৈরি হয়েছে। আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অনেকেই বলতে থাকেন, দীর্ঘ দিন পর হলেও আপন পরিচয়ে ফিরেছে পাঠানপাড়ার এ মসজিদ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে/জেডএম