বিবাহিতদের দিয়ে ছাত্রদলের কমিটি, ক্ষোভের আগুনে পুড়ল কার্যালয়

বিবাহিতদের দিয়ে ছাত্রদলের কমিটি, ক্ষোভের আগুনে পুড়ল কার্যালয়

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:০৪ ১ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ২০:৩২ ১ ডিসেম্বর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দীর্ঘ সাত বছর পর পূর্ণাঙ্গ কমিটির মুখ দেখল চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল। তবে সোমবার ঘোষিত ২৭২ সদস্যের এ কমিটিতে বিবাহিত ও অছাত্ররা স্থান পাওয়ায় নেতাকর্মীদের মাঝে বইছে সমালোচনার ঝড়।

গাজী সিরাজ উল্লাহ ও বেলায়েত হোসেন বুলুর নেতৃত্বে আংশিক কমিটি থেকে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এরপরই নগর বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে আগুন দেন পদবঞ্চিত ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

তাদের দাবি, বিবাহিত, অছাত্র, মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসায়ীদের নিয়ে গঠন করা হয়েছে ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি। মূল্যায়ন পাননি ত্যাগী নেতারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রদলের এক নেতা বলেন, সারা বছর যারা দলের জন্য পরিশ্রম করেছেন, তাদের মূল্যায়ন করা হয়নি। মূল্যায়ন করা হয়েছে অছাত্র-মাদকাসক্তদের। তাদের মধ্যে আবার অনেকেই বিয়ে করে দুই-তিন সন্তানের জনক।

জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের এক নেতা বলেন, দীর্ঘদিন পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকায় অনেক সক্রিয় কর্মী পদ-পদবির বাইরে ছিলেন। মূলত তাদের কথা বিবেচনায় রেখে কমিটিতে বিবাহিতদের রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে অছাত্র, মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসায়ীদের কমিটিতে রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে মুখ খুলতে রাজি হননি তিনি।

২০১৩ সালের ২১ জুলাই গাজী সিরাজ উল্লাহকে সভাপতি ও বেলায়েত হোসেন বুলুকে সাধারণ সম্পাদক করে চারজন সহ-সভাপতি, চারজন যুগ্ম সম্পাদক ও একজন সাংগঠনিক সম্পাদক নিয়ে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের ১১ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। ১১ সদস্যের সেই কমিটির চার যুগ্ম সম্পাদকের একজন জালাল উদ্দিন সোহেল মারা গেছেন। এছাড়া বাকি ১০ জনের নয়জনই পদ নিয়ে পাড়ি জমান মূল দলসহ সহযোগী সংগঠনগুলোতে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এইচএন