চাচার হাতের লাঠি কেড়ে নিয়ে চাচাকেই পিটিয়ে মারল ভাতিজা

চাচার হাতের লাঠি কেড়ে নিয়ে চাচাকেই পিটিয়ে মারল ভাতিজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৪৫ ১ ডিসেম্বর ২০২০  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে চাচাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ভাতিজার বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার মধ্য মেড্ডায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আব্দুল মালেক মধ্য মেড্ডা এলাকার কাশেম মিয়ার ছেলে। অভিযুক্তের নাম মনির মিয়া।

নিহতের স্বজনরা জানান, কয়েক বছর আগে ভাতিজা মনির মিয়ার কাছ থেকে থেকে সুদে আড়াই লাখ টাকা নেন আব্দুল মালেক। সুদে আসলে এই টাকার পরিমান ১০ লাখে দাঁড়ায়। এ নিয়ে ঝামেলা সৃষ্টি হলে সালিস বসায় স্থানীয়রা। সালিসে মনিরকে তার চাচা সব মিলিয়ে দুই লাখ টাকা দেবেন বলে সিদ্ধান্ত হয়। পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী সোমবার টাকা দেয়ার শেষ দিন ছিল। সময়মতো টাকা পরিশোধ করতে না পারায় রাতে ভাতিজা মনিরের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় আব্দুল মালেকের। এক পর্যায়ে চাচার হাতের লাঠি কেড়ে নিয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে লাঠি দিয়ে আঘাত করে মনির। এতে আব্দুল মালেক গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি মো. আব্দুর রহিম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেলা সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর