সম্পত্তি পেতে অন্যকে বাবা দাবি, অতঃপর...

সম্পত্তি পেতে অন্যকে বাবা দাবি, অতঃপর...

রাজশাহী প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৮:৫৯ ১ ডিসেম্বর ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অন্য ব্যক্তির সম্পত্তির লোভে ছেলে সেজে দেওয়ানি আদালতে মামলা করেন এক ব্যক্তি। কিন্তু মামলার বিচারের সময় বাদী ভুয়া ছেলে প্রমাণিত হয়েছেন। এ সময় আদালত বাদীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় ও মামলাটি খারিজ করেন। 

সোমবার রাজশাহীর তানোর সহকারী জজ আদালতের বিচারক মো. আলমগীর হোসেন এ রায় দেন।  মামলাটির বাদী ছিলেন আইয়ুব আলী নামের এক ব্যক্তি।

আদালত সূত্রে জানা যায়, আইয়ুব আলী নিজেকে মমিন মণ্ডল নামক এক ব্যক্তিকে বাবা হিসেবে দাবি করে সম্পত্তিতে ভাগ চেয়ে তানোর সহকারী জজ আদালতে বাদী হয়ে ৫৩/১২ মামলা করেন।

বাদী আইয়ুব আলী মামলায় উল্লেখ করেন, মমিন মণ্ডলের দুই সন্তান। একজনের নাম করিম বক্স ও অপরজনের নাম এলাহী বক্স। করিম বক্স বাদীর বাবা আর এলাহী বক্স বাদীর চাচা।

তবে বিচার চলাকালীন চাচা এলাহী বক্স বাদীর পক্ষে ওই মামলায় সাক্ষ্য দিতে এসে আদালতকে জানান, বাদী আইয়ুব আলীর পিতামহের নাম আলিম মণ্ডল, মমিন মণ্ডল নয়। বাদী তার পিতামহের নামই জানেন না।

এছাড়া চাচার সাক্ষ্যের সঙ্গে বাদীর দাবির আরো অনেক গড়মিল পাওয়া যায়। তাছাড়া, পুরাতন খতিয়ান ও সাক্ষ্যপ্রমাণ থেকে মমিন মণ্ডলের সম্পত্তি পেতে মামলাটি করেছিলেন বাদী। মূলত মমিন মণ্ডলের সন্তানদের নাম হায়াত বক্স ও আতেজান।

মামলার বিচারকার্য শেষে অন্য ব্যক্তিকে নিজের বাবা দাবি করে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় আদালত বাদীর মামলা খারিজ করেন। একই সঙ্গে বাদীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এই জরিমানার প্রাপ্ত টাকা বিবাদী পাবেন বলে আদেশ দেন আদালত।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ