ভারত থেকে ফিরলেন চার তরুণী

ভারত থেকে ফিরলেন চার তরুণী

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৩ ২৯ নভেম্বর ২০২০  

কাজের জন্য ভারতে গিয়ে জেল খাটা চার তরুণীকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ

কাজের জন্য ভারতে গিয়ে জেল খাটা চার তরুণীকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ

ভারতে বিভিন্ন মেয়াদে কারাভোগের পর বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে দেশে ফিরেছেন চার তরুণী। রোববার সকালে তাদের বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেছে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ।

তারা হলেন- নারায়ণগঞ্জের দক্ষিণ স্বরুপকাঠি গ্রামের আবুল কালামের মেয়ে সোনিয়া আক্তার, নড়াইলের লক্ষীপুরের সারেজাহান কাজির মেয়ে আসমা আক্তার রুমা, ফরিদপুরের ছাগলছিরা গ্রামের আজিজুল হকের মেয়ে লিজা ওরফে সোহাগী, রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে জেসমিন আক্তার।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি আহসান কবির বলেন, ওই চার তরুণী ভালো কাজের প্রলোভনে পড়ে দালালের মাধ্যমে অবৈধভাবে ভারতে গিয়েছিলেন। মুম্বাই শহরে কাজ করার সময় সে দেশের পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। পরে তাদের কারাগারে পাঠায় মুম্বাইয়ের আদালত। সেখান থেকে এআরজেড নামে একটি এনজিও তাদের শেল্টার হোমে নিয়ে যায়। সেখানে ২-৩ বছর থাকার পর দেশে ফেরেন তারা।

ভুক্তভোগী আসমা আক্তার রুমা বলেন, আমি মুম্বাই শহরে প্রায় ১০ বছর ছিলাম। সেখানে বিভিন্ন বাসায় কাজ করতাম। পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর তিন বছর শেল্টার হোমে থেকে দেশে ফিরলাম।

এনজিও যশোর রাইটস-এর এরিয়া কোয়ার্ডিনেটর আব্দুল মুহিত বলেন, দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি আদান-প্রদানের এক পর্যায় বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যেমে রোববার ওই চার তরুণীকে দেশে আনা হয়। আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের যশোর নেয়া হবে। পরে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর