মাটি খুঁড়লেই বেরিয়ে আসছে লাশ-হাড়-কঙ্কাল

মাটি খুঁড়লেই বেরিয়ে আসছে লাশ-হাড়-কঙ্কাল

কুমিল্লা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:০০ ২৯ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ২০:০৭ ৩০ নভেম্বর ২০২০

টিক্কারচর কবরস্থান, কুমিল্লা

টিক্কারচর কবরস্থান, কুমিল্লা

কুমিল্লায় অজ্ঞাত লাশের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ২০০১ সাল থেকে চলতি বছরের ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত দুই হাজার ৬৪০টি অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশের সংখ্যা বাড়লেও নগরীর টিক্কারচর কবরস্থানে দাফন করা নিয়ে দেখা দিয়েছে বিড়ম্বনা। নতুন কবর খনন করতে গিয়ে কোদাল চালালেই উঠে আসছে পুরোনো লাশ, হাড় কিংবা কঙ্কাল।

পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া লাশের মধ্যে প্রায় অর্ধেকই নারী। পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব না হলে উদ্ধার হওয়া লাশের ছবি তুলে ও ময়নাতদন্ত করে দাফনের জন্য কুমিল্লা নগরীর ইপিজেড রোডের আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামে পাঠানো হয়। পরে সেই লাশ দাফনের জন্য নেয়া হয় টিক্কারচর কবরস্থানে।

আরো পড়ুন>>> ৮ হাজার ফ্যান অর্ডার দিয়ে ট্রাকভর্তি ইট-ঝুট কাপড় পেলেন ব্যবসায়ী

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. শারমীন সুলতানা বলেন, আমাদের মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগে এখনো ডিএনএ ল্যাব চালু হয়নি। লাশের পরিচয় শনাক্তসহ অন্যান্য প্রয়োজনে ডিএনএ প্রযুক্তির দরকার হলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার চাহিদা অনুসারে আলামত ঢামেক কিংবা পুলিশের মালিবাগের ডিএনএ ল্যাবে পাঠানো হয়।

কুমিল্লার এডিশনাল এসপি (উত্তর) শাহরিয়ার মোহাম্মদ মিয়াজী বলেন, অজ্ঞাত লাশ উদ্ধারের পর প্রযুক্তি ব্যবহার করে পরিচয় শনাক্ত করতে আমরা পিবিআই ও সিআইডির সহায়তা নিয়ে থাকি। প্রয়োজনে ডিএনএ নমুনাও সংগ্রহ করা হয়। লাশ বিকৃত ও নষ্ট হয়ে গেলে অনেক সময় প্রযুক্তির মাধ্যমেও কাজ হয় না।

আরো পড়ুন>>> পরকীয়া প্রেমিকার ঘরে রাতভর আনন্দ, অবশেষে ধরা

আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম কুমিল্লা শাখার সহকারী পরিচালক সাজ্জাদ হোসেন বলেন, সিটি কর্পোরেশন বেওয়ারিশ লাশ দাফনের জন্য যে জায়গা দিয়েছে তা খুবই সামান্য। তাই পুরুষ ও নারীর কবর দেয়ার জন্য ইসলামী শরিয়া মোতাবেক যেটুকু কবর খনন করার কথা তা সেখানে সম্ভব হয় না। কবর খনন করতে কোদাল চালাতেই মাটির নিচ থেকে পুরোনো লাশ, হাড় কিংবা কঙ্কাল উঠে আসে।

সংস্থাটির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল হাসেম বলেন, নগরীর একাধিক পরিত্যক্ত স্থানের লিজ পেতে পাউবোর সহায়তায় জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করা হয়েছে। বিকল্প একটি কবরস্থান না করা গেলে টিক্কারচর কবরস্থানে আর হয়ত লাশ দাফন সম্ভব হবে না।

আরো পড়ুন>>> ঝিনাইদহে আটকা পড়েছে এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে বিষধর সাপ

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেন, টিক্কারচর কবরস্থানের উন্নয়নে ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ শুরু হবে। টমছমব্রিজ কবরস্থান বর্ধিত করতে ৬০ লাখ টাকার জমি কেনা হয়েছে। এছাড়া নগরীতে আরো কয়েকটি কবরস্থান করার পরিকল্পনা রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর/জেডএম