নিখোঁজের চার দিন পর জলাশয়ে মিলল পাহারাদারের লাশ

নিখোঁজের চার দিন পর জলাশয়ে মিলল পাহারাদারের লাশ

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৫৮ ২৮ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১২:৫৯ ২৮ নভেম্বর ২০২০

পাহারাদারের লাশের সামনে স্বজনদের আহাজারি

পাহারাদারের লাশের সামনে স্বজনদের আহাজারি

শেরপুরের শ্রীবরদীতে নিখোঁজের চার দিন পর জলাশয় থেকে সোহেল ওরফে বাবু নামে ইটভাটার এক পাহারাদারের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকাল ১০টার দিকে শ্রীবরদী সদর ইউনিয়নের নয়ানী শ্রীবরদী গ্রামের নিলক্ষিয়া সড়কের পাশে জলাশয় থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত বাবু ওই এলাকার গোলাপ আলীর ছেলে ও জেইউবি ইটভাটার পাহাড়াদার।  

নিহতের স্ত্রী ইয়াছমিন জানান, তার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামে জেইউবি ইটভাটার পাহারাদার হিসেবে কাজ করতেন। গত মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। রাতে বাড়ি ফিরে না আসায় তাকে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে থানায় জিডি করা হয়। শনিবার সকালে তার লাশ মেলে। 

নিহত বাবুর সহকর্মী সাইদুর রহমান বলেন, ওইদিন সন্ধ্যায় ৭টার দিকে খাবার কথা বলে তিনি বাড়িতে যান। আর ফিরে আসেননি। ওই ইটভাটার কয়লা শ্রমিক শফিকুল ইসলাম বলেন, বাবু সবার সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করতেন। কারো সঙ্গে তেমন কোনো বিরোধ ছিল না। সকালে জানতে পারি তার লাশ পানিতে পড়ে আছে। 

তবে এ ব্যাপারে নিহত বাবুর মা খোদেজা বেগম বলেন, আমার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই। 

লাশের পরনে লুঙ্গি ও গায়ে জাম্পার ছিল। পানিতে থাকার কারণে লাশ অনেকটাই ফুলে গেছে। লাশের সুরতহাল সংগ্রহ করা হয়েছে। 

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে থানার ওসি মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, জলাশয় থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে ঘটনাটি রহস্যজনক। এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ