স্ত্রীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে স্বামীর মানববন্ধন

স্ত্রীর অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে স্বামীর মানববন্ধন

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:১৮ ২১ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৯:২০ ২১ নভেম্বর ২০২০

মানববন্ধনে বেশ কয়েকজন গ্রামবাসীও যোগ দেন

মানববন্ধনে বেশ কয়েকজন গ্রামবাসীও যোগ দেন

নড়াইলের লোহাগড়ায় স্ত্রীর নির্যাতন, হয়রানি ও স্বর্ণসহ টাকা-পয়সা আত্মসাতের অভিযোগ এনে মানববন্ধন করেছেন ভুক্তভোগী স্বামী। একই সঙ্গে এর প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসন বরাবর স্মারকলিপি দেন তিনি।

শনিবার দুপুরে লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের জয়পুর কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন হয়। মানববন্ধনে বেশ কয়েকজন গ্রামবাসীও যোগ দেন।

মানববন্ধনে ভুক্তভোগী আফজাল হোসেন বলেন, বেশ কিছুদিন আগে বাড়ি থেকে টাকা, স্বর্ণালংকার ও মূল্যবান আসবাবপত্র নিয়ে পালিয়ে যান আমার স্ত্রী মিনা বেগম। এরপর ভুয়া তালাকনামা পাঠিয়ে আমার নামে প্রশাসনের কাছে বিভিন্ন মিথ্যা তথ্য-সম্বলিত অভিযোগসহ মামলা করে হয়রানি করছেন।

তিনি আরো বলেন, সংসারে থাকাকালীন মিনা বেগম আমাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। এখন তার হুমকিতে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে আমাকে পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে। আমি ওই নারীর ষড়যন্ত্র থেকে মুক্তি চাই।

আফজাল বলেন, ২০০৮ সালে নড়াইল সদর উপজেলার চিলগাছা রঘুনাথপুর গ্রামের আয়ুব মোল্যার মেয়ে মিনার সঙ্গে আমার বিয়ে হয়। এর আগেও মিনার দুটি বিয়ে হয়েছিল। ব্যবসার কাজে বাইরে চলতি বছরের ১ জুন সস্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমার বাড়িতে ঢোকেন মিনা। পরে টাকা, স্বর্ণালংকার, ফ্রিজসহ দামি আসবাবপত্র নিয়ে যান।

এ ঘটনায় ২৬ জুন লোহাগড়া থানায় মামলা করি। মামলাটি আদালতে বিচারাধীন। মিনা বেগম ও তার সমর্থিত সন্ত্রাসী বাহিনী বিভিন্নভাবে আমাকে ও আমার মেয়েকে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। আমি ওই নারীর হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনসহ সবার সহযোগিতা চাই।

মানববন্ধনে আফজালের তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে বলে, আমার মা মিথ্যা কথা বলে সোনা-দানা, টাকা নিয়ে চলে গেছেন। আব্বার নামে মিথ্যা অভিযোগ করেছেন।

জয়পুর গ্রামের লাকী বেগম বলেন, মিনা মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আফজাল হোসেনকে হয়রানি করছেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন পৌর কাউন্সিলর বিশ্বনাথ দাস ভুণ্ডুল, প্রভাষ মো. তজিবর রহমান, শাহরিয়ার মারুফ, আলী সিকদার, সাবেক ইউপি সদস্য মো. টুকু সিকদার প্রমুখ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর