দ্রুত এগিয়ে চলছে পিরোজপুরের কালিগঙ্গা নদীর উপর সেতু নির্মাণ কাজ

দ্রুত এগিয়ে চলছে পিরোজপুরের কালিগঙ্গা নদীর উপর সেতু নির্মাণ কাজ

পিরোজপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৫৫ ২১ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:১১ ২১ নভেম্বর ২০২০

দ্রুত এগিয়ে চলছে সেতু নির্মাণ কাজ

দ্রুত এগিয়ে চলছে সেতু নির্মাণ কাজ

দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে পিরোজপুর-নেছারাবাদ সড়কে কালিগঙ্গা নদীর উপরে সেতু নির্মাণ কাজ। যার ব্যয় ধরা হয়েছে  ১১৫ কোটি টাকা। এরই মধ্যেই সেতুটির ১৫ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ২০২১-২০২২ অর্থ বছরে সেতুটি যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া সম্ভব হবে বলে  আশা করছে সংশ্লিষ্ট প্রকৌশল বিভাগ।

এদিকে এ সেতুটির দু’পাড়ে দেড় কিলোমিটার সংযোগ সড়ক নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণের কাজ শুরু হয়েছে। গত বুধবার বিকেলে পিরোজপুরের ডিসি আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে জেলা ভূমি ব্যবস্থাপনা ও অধিগ্রহণ কমিটির এক সভা হয়। এতে সংযোগ সড়ক নির্মাণের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। 

নদীর দুই তীরের সংযোগ সড়ক তৈরির জন্য ১১ দশমিক ৩৬ একর জমি অধিগ্রহণ করে দেড় কিলোমিটার সংযোগ সড়কের পিরোজপুর প্রান্তে ৭ দশমিক ৪৮ একর এবং স্বরূপকাঠী প্রান্তে ৩ দশমিক ৮৮ একর জমির প্রয়োজন হবে। 

সেতু নির্মাণে সম্পৃক্ত শ্রমিকরা-ছবি সংগৃহীত

দেড় কিলোমিটার সড়কের পিরোজপুর প্রান্তে ১ কিলোমিটার ও স্বরূপকাঠী প্রান্তে আধা কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ করা হবে। ৬০০ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ১৫ দশমিক ৩৫ কিলোমিটার প্রস্থের এ সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে জেলা সদরের সঙ্গে স্বরূপকাঠী উপজেলার সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে। সেতুটি বানারীপাড়া উপজেলা ও বিভাগীয় শহর বরিশালের সঙ্গে জেলা শহর পিরোজপুরের সরাসরি সড়ক যোগাযোগের ক্ষেত্রে অন্যতম ভূমিকা রাখবে। 

এ সেতুটি নির্মাণ কাজ শেষ হলে নেছারাবাদ উপজেলার সন্ধ্যা নদীর পশ্চিম তীরের ৬টি ইউনিয়নের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবী, কৃষক-শ্রমিক এবং বিভিন্ন ধরনের ব্যবসায়ীসহ লক্ষাধিক মানুষ উপকৃত হবে। 

নেছারাবাদ উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক মো. নজরুল ইসলাম জানান, কালিগঙ্গা সেতু ও সংযোগ সড়কের কাজ সম্পন্ন হলে সন্ধ্যা নদীর পশ্চিম তীরের মানুষের জীবনে এক অন্যরকম প্রাণচাঞ্চল্যের সৃষ্টি হবে। 

গুয়ারেখা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কাওছার হোসেন জানান দীর্ঘদিন ধরে ৬টি ইউনিয়নের লাখো মানুষ সন্ধ্যা নদী পার হয়ে স্বরূপকাঠী থেকে কাউখালী উপজেলার উপর থেকে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে মামলা-মোকদ্দমাসহ বিভিন্ন প্রয়োজনে জেলা শহর পিরোজপুরে যেতে হয়। এ সেতুটি চালু হলে সীমাহীন দুর্ভোগ ও কষ্ট শেষ হবে।

পিরোজপুরের এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী সুশান্ত রঞ্জন রায় জানান, কলাখালীতে কালিগঙ্গা নদীর উপর সেতু নির্মাণের কাজ দ্রুততার সঙ্গেই এগিয়ে চলছে। এ সেতু নির্মাণের কাজে কোনো ধরনের গাফিলতি বরদাস্ত করা হবে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ