রায়হানকে ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়া সেই এএসআই ৫ দিনের রিমান্ডে

রায়হানকে ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়া সেই এএসআই ৫ দিনের রিমান্ডে

সিলেট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩০ ২৯ অক্টোবর ২০২০  

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আশেক এলাহীকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পিবিআই

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আশেক এলাহীকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পিবিআই

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান নিহতের মামলায় ফাঁড়ির এএসআই আশেক এলাহীকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পিবিআই। তিনিই ১০ অক্টোবর রাতে রায়হানকে ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে যান।

বৃহস্পতিবার বিকেলে অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াদুর রহমান ওই পুলিশ কর্মকর্তার রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে, দুপুর ৩টার দিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে এএসআই আশেক এলাহীকে আদালতে তোলা হয়। পরে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পিবিআই।

বুধবার রাতে সিলেট মহানগর পুলিশ লাইন থেকে এএসআই আশেক এলাহীকে গ্রেফতার করে পিবিআই। ১১ অক্টোবরের ঘটনার পরই ফাঁড়ি থেকে তাকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনসে রাখা হয়েছিল।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক মুহিদুল ইসলাম জানান, এ নিয়ে রায়হান হত্যা মামলায় তিন পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিরা হলেন- সাময়িক বরখাস্ত হওয়া কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাস ও হারুনুর রশিদ। এছাড়া এএসআই আশেক এলাহী যার অভিযোগে রায়হানকে ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে যায়, শেখ সাইদুর নামে সেই ব্যক্তিকেও গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এএসআই আশেক এলাহী ১০ অক্টোবর রাত ৩টার দিকে রায়হানকে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে তুলে নিয়ে যান। ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান নিহত হলে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অনুসন্ধান কমিটির তদন্তে তাকে ফাঁড়ি থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছিল। রায়হানকে নির্যাতন করার সময় আশেক সেখানে ছিলেন এবং রায়হানকে তুলে আনার সময়ও ছিলেন তিনি। বিষয়টি আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে বলেছেন ঘটনার রাতে ফাঁড়িতে থাকা তিনজন কনস্টেবল।

১১ অক্টোবর নিহত হন নগরীর আখালিয়া নিহারিপাড়ার বাসিন্দা রায়হান উদ্দিন আহমেদ। ওই ঘটনায় ওইরাতেই নিহতের স্ত্রী কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। পরে বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়াসহ চারজনকে বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়। ১২ অক্টোবর গা ঢাকা দেন আকবর। তাকে পালাতে সহায়তার অভিযোগে ফাঁড়ির এসআই হাসান উদ্দিনকে ২১ অক্টোবর সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর