এক ঘুষিতে নাক ফাটল চেয়ারম্যানের, চা বিক্রেতার দোকানে আগুন

এক ঘুষিতে নাক ফাটল চেয়ারম্যানের, চা বিক্রেতার দোকানে আগুন

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:১৮ ২৯ অক্টোবর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার মদাতী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরকে এক ঘুষি মেরে নাক ফাটিয়ে দিয়েছেন চা বিক্রেতা নেছার উদ্দিন।

এ ঘটনায় বুধবার বিকেলে ওই চা বিক্রেতার দোকান পুড়িয়ে দিয়েছে চেয়ারম্যানের লোকজন। নেছার উদ্দিন মৌজা শাখাতি এলাকার ছকমল হোসেনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে নেছার উদ্দিনের সঙ্গে তার ভাই ইয়াকুব আলীর জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। ওই ঘটনায় ইয়াকুব আলী মদাতী ইউপিতে অভিযোগ করেন। পরে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের সালিস করে এক লাখ ২০ হাজার টাকায় মীমাংসা করেন।

বুধবার দুপুরে ইউপি কার্যালয়ে আরেকটি সালিস চলাকালে নেছার উদ্দিন চেয়ারম্যানকে ডেকে নেন। দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান আব্দুল কাদেরকে কিল-ঘুষি মারতে শুরু করেন নেছার উদ্দিন। এতে তার নাক ফেটে রক্ত বের হয়।

ওই সময় ইউপি মেম্বাররা আহত চেয়ারম্যানকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনার পর চেয়ারম্যানের লোকজন ইউপি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ শুরু করলে কালীগঞ্জের ইউএনও এবং পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ওসি আরজু মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, মদাতী ইউপির ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আমিনুল হক মোহন বাদী হয়ে নেছার উদ্দিনসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় নেছার উদ্দিনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।  

কালীগঞ্জের ইউএনও রবিউল হাসান বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক ও অনাকাঙ্ক্ষিত। এ ঘটনায় এরই মধ্যে মূল আসামিকে ধরা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করার ব্যবস্থা করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে