টিকা দেয়ার ১০ মিনিটেই ছটফটিয়ে মৃত্যুর কোলে ২২ দিনের শিশু

টিকা দেয়ার ১০ মিনিটেই ছটফটিয়ে মৃত্যুর কোলে ২২ দিনের শিশু

গাইবান্ধা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৪৫ ২১ অক্টোবর ২০২০  

স্বজনদের মাঝে মৃত শিশু মোহসীনা

স্বজনদের মাঝে মৃত শিশু মোহসীনা

টিকা দেয়ার ১০ মিনিটেই ছটফটিয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল মোহসীনা নামে ২২ দিনের এক শিশু। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে বিসিজি টিকা দেয়ার পর এমন মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউপির বামনডাঙ্গা ইউপি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটেছে। মৃত শিশু মোহসীনা বামনডাঙ্গা ইউপির জামাল গ্রামের আব্দুর রহিম মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, মেয়াদ উত্তীর্ণ একাধিক টিকা দেয়ার কারণে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তাছাড়া টিকা দেয়ার আগে শিশুটির স্বাস্থ্যও পরীক্ষা করা হয়নি।

টিকা নিতে আসা ওই শিশুর দাদি জানান, টিকা দেয়ার আগে কিছু একটা খাওয়ায় তার নাতিকে। এরপর তাকে দুটি টিকা দেয়া হয়। এরপর রাস্তায় রোদ থাকায় কাপড় দিয়ে ঢেকে বাড়িতে নিয়ে যায়।

এতে সময় লাগে আনুমানিক ১০ মিনিট। পরে শিশুটির মা শিরিনা বেগম বুকের দুধ খাওয়াতে গেলে দেখে শিশুটির নাখ ও মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। আর মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করছে।

শিশুর বাবা আব্দুর রহিম মিয়া অভিযোগ, একাধিক টিকা দেয়ার কারণে তার সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। কাজেই আইনি সহায়তা চাইবেন তিনি।

টিকা দেয়ার দায়িত্বে নিয়োজিত ইউপি স্বাস্থ্য সহকারী লুচি বেগম জানান, একাধিক নয়, শুধুমাত্র বিসিজি টিকা দিয়েছি। মৃত্যুর জন্য আমি দায়ী না।

বামনডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান নজমুল হুদা জানান, টিকা দেয়ার পর শিশুটি মারা যায়। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা দরকার।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আশরাফুজ্জামান সরকার জানান, টিকা দেয়ার কারণে শিশুটির মৃত্যু হতে পারে না। শিশুটির কোনো সমস্যা থাকতে পারে। তারপরও এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান জানান, এই বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি। ঘটনাটি শোনার পরে পুলিশ পাঠিয়েছি, তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ