মোবাইলে প্রেম: গাইবান্ধায় এক মাসে হুট করেই ২৩ তরুণী উধাও

মোবাইলে প্রেম: গাইবান্ধায় এক মাসে হুট করেই ২৩ তরুণী উধাও

গাইবান্ধা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:০১ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

সাদুল্যাপুরে এক মাসে উধাও ২৩ তরুণী। ফাইল ছবি

সাদুল্যাপুরে এক মাসে উধাও ২৩ তরুণী। ফাইল ছবি

মোবাইল ফোনে প্রেম, এরপর একে একে এক মাসেই ২৩ তরুণী উধাও! এদের মধ্যে কেউ অষ্টম শ্রেণীর, কেউ-বা দুই সন্তানের মা। এসব ঘটনায় একজনের অভিভাবক থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। বাকীদের অভিভাবক থানায় সাধারণ ডায়েরি অথবা পুলিশের কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছেন।

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে সেপ্টেম্বরে মোবাইল প্রেমের সূত্র ধরে ঘটনাগুলো ঘটেছে। বুধবার উপজেলা পরিষদের মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভায় এসব তুলে ধরেন সাদুল্যাপুর থানার ওসি মাসুদ রানা।

ওসি মাসুদ রানা সভায় বলেন, মোবাইলে প্রেম এই মুহূর্তে বড় আতঙ্কের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। অবুঝ শিশুরা কিছু বুঝে উঠার আগেই ফেসবুকে অথবা মোবাইল প্রেমে জড়িয়ে অজানার উদ্দেশে পাড়ি জমাচ্ছে। এই শিশুদের অনেকের পরিবার লোকলজ্জার ভয়ে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীকে পর্যন্ত জানাতে চান না। আবার কোনো অভিভাবক থানায় আসলেও সাধারণ ডায়েরি করেই চুপ থাকতে চান। এভাবে সেপ্টেম্বর মাসে এই উপজেলার ২৩ জন মেয়ে বাড়ি ছাড়া হয়েছে।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সাহানাজ আক্তার বলেন, শিশু-কিশোরদের মোবাইল প্রেম অথবা ফেসবুক আসক্তি বন্ধ করতে কাউন্সিলিং জরুরি হয়ে পড়েছে। করোনার কারণে এখন যেহেতু বিদ্যালয় বন্ধ তাই আমরা চেষ্টা করবো গ্রামে গ্রামে ঘুরে শিশু-কিশোরদের সচেতন করে তুলতে। তবে সবারই এ বিষয়ে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা আরিফুর রহমান কনকের সভাপতিত্বে এ সভা শুরু হয়। এতে আলোচনা করেন উপজেলা চেয়ারম্যান সাহারিয়া খাঁন বিপ্লব, থানার ওসি মাসুদ রানা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহিনুল ইসলাম মন্ডল, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বসুনিয়া, শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল্লাহিস শাফি, সমাজ সেবা কর্মকর্তা মানিক চন্দ্র রায়, খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোফ্ফাখারুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সাহানাজ আক্তারসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে