পাওনা টাকা চাওয়ায় টেঁটা বিদ্ধ করে হত্যা

পাওনা টাকা চাওয়ায় টেঁটা বিদ্ধ করে হত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:২৫ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

হাসপাতালে স্বজনদের ভিড়

হাসপাতালে স্বজনদের ভিড়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ঈশান মিয়া এবং মনির হোসেন নামে দুই যুবককে টেঁটা বিদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার লালপুর ইউপির লামা বায়েক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আরো দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, শুঁটকি ব্যবসার পাওনা কোটি টাকা নিয়ে মিজান মিয়ার সঙ্গে একই এলাকার আলী আজমের বিরোধ ছিল। বিরোধের জের ধরে বুধবার সন্ধ্যায় মিজান মিয়ার ছেলে ঈশান তার চাচাতো ভাই মনিরকে সঙ্গে নিয়ে আলী আজমের কাছে টাকা চাইতে যায়। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা সৃষ্টি হয়।

পরে আলী আজমের লোকজন ঈশান তার চাচাতো ভাই মনিরের উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত হামলা এবং আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই ঈশান এবং মনির হোসেন নিহত হয়। এ ঘটনায় ছুরিকাঘাতে তফসির এবং রাসেল নামে অপর দুই যুবক আহত হয়। ঘটনার পর আহতদেরকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত ঈশানের চাচা শাহআলম জানান, দীর্ঘ দিন ধরে আলী আজম তার লোকজন মিজানুর রহমানের পাওনা কোটি টাকা নিয়ে নানা টালবাহানা করতে থাকে। এ নিয়ে এলাকায় একাধিক সালিশ দরবারও হয়। তবে কোনো সুরাহা হয়নি। সন্ধ্যায় পাওনাদার মিজানুর রহমানের ছেলে আমার ভাতিজা ঈশান অপর ভাতিজা মনিরকে নিয়ে টাকা চাইতে গেলে আলী আজম এবং তার লোকজন পরিকল্পিতভাবে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় ছুরি এবং টেঁটার আঘাতে ঘটনাস্থলে দুইজন নিহত হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা এএসআই মো. ইউনুছ আলী বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আমরা হাসপাতালে এসেছি। আমরা ঘটনার খোঁজখবর নিচ্ছি। দুইজন নিহত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি। এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য নেয়া হচ্ছে।

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা: ফয়েজুর রহমান ফয়েজ জানান, হাসপাতালে আসার আগেই ঈশান মিয়া এবং মনির হোসেন মারা গেছে। নিহতদের শরীরে বিভিন্ন স্থানে টেঁটার আঘাত রয়েছে। আহত তফসির ও রাসেল এর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্যে ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ