সমন্বয়হীন হবিগঞ্জ জাতীয় পার্টি

সমন্বয়হীন হবিগঞ্জ জাতীয় পার্টি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৩৯ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৪:৫৪ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

হবিগঞ্জে অদক্ষ নেতৃত্ব ও কমিটি গঠন নিয়ে জটিলতাসহ নানা কারণে অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে জাতীয় পার্টি। সমন্বয়হীনতার কারণে জেলায় দলটির নেই কোনো কার্যক্রম, সাংগঠনিক তৎপরতা। দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতেও দেখা মেলে না নেতা-কর্মীদের।

এছাড়া কোন্দলে জর্জরিত জেলা জাতীয় পার্টি। সমন্বয়হীনতার কারণে কর্মীদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ নেই নেতাদের। সব মিলিয়ে হবিগঞ্জ জাতীয় পার্টির আজ করুণ দশা। আর এতে ধীরে ধীরে জনসমর্থন হারাচ্ছে দলটি।

জানা গেছে, কয়েক বছর আগে আতিকুর রহমান আতিককে সভাপতি ও শংকর পালকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা জাতীয় পার্টির কমিটি ঘোষাণা করা হলেও এখনো আলোর মুখ দেখেনি এই কমিটি।

পুরোনো ঐতিহ্য ধরে রাখতে না পারা, জনগণের পাশে না থাকায় হবিগঞ্জে নিজেদের অস্তিত্ব হারাচ্ছে জাতীয় পার্টি। এমনটাই মনে করছেন জেলার সচেতন মহল।

জেলা জাতীয় পার্টির তৃণমূল নেতা-কর্মীরা বলছেন, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে গ্রুপিং আছে। এ কারণে এখনো পূর্ণাঙ্গ হয়নি কমিটি। এ কমিটি দিয়েই জেলায় সীমিত আকারে চলছে কার্যক্রম। সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক বছরের পর বছর ঢাকায় অবস্থান করেন। ফলে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে তার তেমন কোনো যোগাযোগ নেই। ঢাকায় থাকলেও নির্বাচনের সময় ঠিকই তিনি টাকার বিনিময়ে মনোনয়ন নিয়ে আসেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার নিয়মিত যোগাযোগ না রাখা ও হবিগঞ্জে না আসাই দল নিষ্ক্রিয় হওয়ার অন্যতম কারণ।

দেশের করোনা পরিস্থিতিতে মানবিকতার দিক থেকে জাতীয় পার্টির পরিস্থিতি উল্টো। অন্য দলগুলো যেখানে ঘরবন্দি মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে, সেখানে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে কাউকে দেয়া হয়নি ত্রাণ কিংবা আর্থিক সহায়তা।

জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক শংকর পাল জানান, জাতীয় পার্টি সব সময় অসহায় দরিদ্র ও নিপীড়িত মানুষের সঙ্গে ছিল, আছে, থাকবে। দলের মধ্যে কোনো গ্রুপিং নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

হবিগঞ্জ জাতীয় পার্টির সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক ঢাকায় থাকেন। মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর/এইচএন