ডোপ টেস্টে ২৬ জনের ১৫ জনের দেহেই মাদকের উপস্থিতি

ডোপ টেস্টে ২৬ জনের ১৫ জনের দেহেই মাদকের উপস্থিতি

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫০ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৪:৫১ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

সাতক্ষীরার কলারোয়া সীমান্তে মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে ২৬ জনকে আটক করে পুলিশ

সাতক্ষীরার কলারোয়া সীমান্তে মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে ২৬ জনকে আটক করে পুলিশ

সাতক্ষীরার কলারোয়া সীমান্তে মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। এ সময় ২৬ যুবককে আটকের পর ডোপ টেস্ট করে ১৫ জনের দেহে মাদকের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। তাদের সঙ্গে নিয়ে মাদক বিক্রেতাদের ধরতে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্র জানায়, জেলা পুলিশের এসপি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের নির্দেশনায় বুধবার বিকেলে কলারোয়া থানার সীমান্তবর্তী এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। এতে অংশ নেন কলারোয়া থানা, জেলা গোয়েন্দা শাখা এবং পুলিশ লাইন্সের সদস্যরা।

সাতক্ষীরার বিভিন্ন থানাসহ পার্শ্ববর্তী যশোর ও খুলনার মাদকসেবীরা কলারোয়ার সীমান্তবর্তী এলাকা- কেড়াগাছী, সোনাবাড়িয়া, চন্দনপুরসহ জালালাবাদ ও ঝিকড়া এলাকায় গিয়ে মাদক সেবন করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে এ অভিযান চালানো হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, আটকের পর ‘বাহ্যিক লক্ষণ বিবেচনায়’ এবং উপস্থিত চিকিৎসকের পরামর্শে মোট ২৬ জনকে মাদকসেবী সন্দেহে ডোপ টেস্টের জন্য সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এতে ১৫ জন মাদকসেবী হিসেবে শনাক্ত হয়। ওই ১৫ জনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। পাশাপাশি, যাদের কাছ থেকে তারা মাদক কিনেছিল সেসব ব্যবসায়ীদের ধরার চেষ্টা করছে পুলিশ।

সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের এএসপি মির্জা সালাহউদ্দিনের নেতৃত্বে পরিচালিত এ অভিযানে অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন কলারোয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হারান চন্দ্র পাল, পুলিশ পরিদর্শক (ডিবি) মো. আজিজুর রহমান, এসআই মনিরুল ইসলাম, এসআই তন্ময়, এসআই সোহরাব হোসেন, এসআই রেজাউল করিমসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার জয়ন্ত সরকারও অভিযানে উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ