মানিকগঞ্জে দুই পরিবারের ১২ জনকে অজ্ঞান করে লুটপাট

মানিকগঞ্জে দুই পরিবারের ১২ জনকে অজ্ঞান করে লুটপাট

সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৪০ ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

শামসুদ্দিন ডিলারের ঘরের ভাঙা আলমারি

শামসুদ্দিন ডিলারের ঘরের ভাঙা আলমারি

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে খাবারের সঙ্গে চেতনানাশক মিশিয়ে দুই পরিবারের ১৩ জনকে অজ্ঞান করে লুটপাট চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার দুপুরে ও রাতে ওই উপজেলার জামির্ত্তা ইউপির আলীনগরে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীরা হলেন- শামসুদ্দিন ডিলার, তার স্ত্রী রাজিয়া খাতুন, ছেলে লতিফ, পুত্রবধূ রিনা আক্তার, নাতনি শামীমা, আয়েশা, নাতি ইব্রাহিম, শামসুদ্দিনের প্রতিবেশী ছকিল উদ্দিন ও তার স্ত্রী হেনা বেগ, ছেলে দেলোয়ার হোসেন, পুত্রবধূ ঝর্ণা আক্তার, নাতি স্বপন ও নাতনি জুথি।

জানা গেছে, সোমবার দুপুরের খাবার খেয়েই অজ্ঞান হয়ে পড়েন শামসুদ্দিন ডিলারের পরিবারের সাতজন ও ছকিল উদ্দিনের পরিবারের ছয়জন সদস্য। ওই রাতে শামসুদ্দিন ডিলারের বাড়ির কলাপসিবল গেটের তালা ভেঙে বাড়িতে ঢোকে দুর্বৃত্তরা। এরপর তারা শোকেস থেকে ৮৫ হাজার ও আলমারি থেকে এক লাখ চার হাজার টাকা লুটে নেয়। অপরদিকে ছকিল উদ্দিন ও তার পরিবার সদস্যদের অজ্ঞান করার বিষয়টি টের পেয়ে রাতে পাহারা দেন তার ভাই আব্দুল করিম। এতে লুটপাট থেকে রেহাই পান তারা।

শান্তিপুর বাঘুলি তদন্তকেন্দ্রের পরিদর্শক মো. লুৎফর রহমান জানান, হলুদের গুড়ার মধ্যে সাদা পাউডার জাতীয় কেমিক্যাল দেখা গেছে। ধারণা করা হচ্ছে- এই পাউডারের প্রভাবেই অজ্ঞান হয়েছেন ওই ১৩ জন। তবে তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর