দুধ চুরির দোহাইয়ে কর্মচারীর প্রাণ নিল মালিক, মায়ের বুকফাটা কান্না

দুধ চুরির দোহাইয়ে কর্মচারীর প্রাণ নিল মালিক, মায়ের বুকফাটা কান্না

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২২:০১ ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ২২:০৪ ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

দুধ চুরির দোহাইয়ে কর্মচারীর প্রাণ নিল মালিক, মায়ের বুকফাটা কান্না

দুধ চুরির দোহাইয়ে কর্মচারীর প্রাণ নিল মালিক, মায়ের বুকফাটা কান্না

চট্টগ্রামে এক দোকান মালিকের বিরুদ্ধে গুঁড়ো দুধ চুরির দোহাই তুলে এক কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার পর মরদেহ গুদামে রাখার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহত কর্মচারীর মায়ের বুকফাটা কান্নায় পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে। 

সোমবার দুপুরে রিয়াজউদ্দীন বাজারে মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত রাসেল নেত্রকোনার আফাজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি বাবা-মায়ের সঙ্গে চট্টগ্রাম নগরীর আইস ফেক্টরি রোডের একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। 

স্থানীয় সূত্র জানায়, সামান্য গুড়ো দুধ চুরির অভিযোগ তুলে ইচ্ছামতো পেটান দোকান মলিক আরমান। এতে রাসেলের অবস্থা খারাপ হয়। এক পর্যায়ে রাসেলের মৃত্যু হয়। ঘটনাটিকে ধামাচাপা দিতে রিয়াজ উদ্দীন বাজারের এস এস টাওয়ারের গুদামে রাসেলের মরদেহটি ফেলে রাখা হয়। পরে খবর পেয়ে রাসেলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এদিকে ছেলে হত্যার খবর পেয়ে রাসেলের মা বুকফাটা কান্নায় ভেঙে পড়েন। তার আর্তনাদে আশপাশের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠে।

পুলিশ সূত্র জানায়, খবর পেয়ে পুলিশ দোকান মালিক আরমান ও আরেক কর্মচারী ইউনুসকে আটক করেছে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন জানান, দোকান মালিক গুঁড়ো দুধ চুরির অভিযোগ তুলে তার এক কর্মচারীকে প্রচুর মারধর করেন। এতে কর্মচারীর মৃত্যু হয়। এ ঘটনার খবর পেয়ে কর্মচারীর মরদেহ উদ্ধার করেছি। এছাড়া এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ