বিয়ের আসর থেকে পালালেন বর, জরিমানা গুনলেন কনের বাবা

বিয়ের আসর থেকে পালালেন বর, জরিমানা গুনলেন কনের বাবা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:০৭ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:০৯ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহাম্মেদ

বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহাম্মেদ

শেরপুরের নকলা উপজেলায় নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে। ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে পুলিশ বিভাগ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় ওই শিক্ষার্থীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করেছেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহাম্মেদ।

ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই বরপক্ষ পালিয়ে গেলেও উপস্থিত কনেপক্ষকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন তিনি। তাছাড়া প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে কোথাও বিয়ে দেবেন না মর্মে মেয়ের বাবাসহ অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়।

আরো পড়ুন: প্রসূতির অস্ত্রোপচার, নবজাতকের পেট কেটে ফেললেন চিকিৎসক

জানা গেছে, শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে শেরপুর ডিসি ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আনার কলি মাহবুব-এর নির্দেশনায় উপজেলার পাঠাকাটা ইউপির বিষ্ণপুর গ্রামে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন-২০১৭ এর আওতায় এ বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। প্রশাসন ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই বরপক্ষ পালিয়ে যাওয়ায় ছেলের বিস্তারিত তথ্য জানা যায়নি। 

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আহাম্মেদ বলেন, জনস্বার্থে এ ধরনের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম