ব্রিজ যেন মরণ ফাঁদ

ব্রিজ যেন মরণ ফাঁদ

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২২:৫৬ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ব্রিজ নয় যেন মরণ ফাঁদ

ব্রিজ নয় যেন মরণ ফাঁদ

বরিশালের আগৈলঝাড়ার গৈলা ইউপির গৈলা-কুমারভাঙা সড়কের ব্রিজের ঢালাই খসে পড়ায় শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়দের মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। 

ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা এলজিইডি বিভাগ কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গৈলা ইউপির উত্তর শিহিপাশা গ্রামের গৈলা-কুমারভাঙা সড়কে এলজিইডি সড়কের ওপর ২০ বছর আগে ব্রিজ নির্মাণ করে। দীর্ঘদিন ধরে ব্রিজের মাঝের ঢালাই খসে পড়ে বড় গর্ত হওয়ায় যানবাহন ও শিক্ষার্থীদের চলাচল বন্ধের পথে। 

ঢালাই খসে পড়ায় স্থানটিতে কাঠ দিয়ে যানবাহনসহ জনগণ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। ব্রিজ নির্মাণের পর এখন পর্যন্ত কোনো সংস্কার করা হয়নি। এর সঙ্গে ব্রিজের রেলিংসহ স্ট্রাকচারগুলো মরিচা ধরে ভেঙে খসে পড়ছে। ঝুঁকিপূর্ণ ওই ব্রিজ দিয়ে উত্তর শিহিপাশা গ্রামের স্কুল, কলেজের হাজার হাজার শিক্ষার্থী প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে। 

প্রতিনিয়তই ব্রিজ দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা। জরুরি ভিত্তিতে ব্রিজটি সংস্কার করা না হলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুঘর্টনা। 

উত্তর শিহিপাশা গ্রামের ভ্যানচালক আ. হালিম আকন বলেন, ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়া সত্বেও প্রতিদিন শতশত শিক্ষার্থী ও হাজার হাজার সাধারণ জনগণ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছে। তাই অতি দ্রুত ব্রিজটি সংস্কার করা না হলে যে কোনো সময় বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। 

উপজেলা প্রকৌশলী রাজ কুমার গাইন বলেন, ভাঙা ব্রিজটি দ্রুতগতিতে সংস্কারের ব্যবস্থা করা হবে।  

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে