দাফনের সময় কেঁদে উঠা নবজাতকের রাখা হলো নাম

দাফনের সময় কেঁদে উঠা নবজাতকের রাখা হলো নাম

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৪৪ ১৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৩:৪৫ ১৭ অক্টোবর ২০২০

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে জন্ম নেয়া ও দাফনের সময় কেঁদে উঠা ওই নবজাতকের নাম রাখা হয়েছে। শনিবার তার নাম মরিয়ম রাখা হয়েছে।

এর আগে ঢামেক হাসপতালে জন্ম নেয়া ওই নবজাতককে মৃত ঘোষণা করে চিকিৎসক। পরে দাফনের সময় সে কেঁদে ওঠে। পরে ফের ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিশুটি বর্তমানে নবজাতকদের জন্য বিশেষায়িত এনআইসিইউতে ভর্তি আছে। 

এদিকে ঢামেক হাসপাতালে জীবিত নবজাতককে মৃত ঘোষণা দেয়ার ঘটনায় গতকাল শুক্রবার তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন জানান, নবজাতকটি জীবিত আছে। সে ভালো আছে ও তার চিকিৎসা চলছে। 

তিনি আরে জানান, একটি জীবিত শিশুকে কেন চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করলো, তা তদন্তে সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রধানকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করতে বলা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার ঢাকা মেডিকেলে জন্ম নেয়া ওই নবজাতককে একটি প্যাকেটে ঢুকিয়ে তার বাবা ইয়াসিন মোল্লার কাছে হস্তান্তর করেন চিকিৎসক। সে সময় চিকিৎসক বলেন, নবজাতকটি মৃতই জন্ম নিয়েছে। 

ইয়াসিন মোল্লা বসিলা কবরস্থানে দাফনের জন্য নবজাতককে নিয়ে গেলে হঠাৎ সে নড়ে ওঠে। পরে সেখান থেকে তিনি তাকে দ্রুত ঢামেক নিয়ে আসেন। বর্তমানে ঢামেক হাসপাতালের নবজাতক ওয়ার্ডে সে চিকিৎসাধীন।

গতকাল হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. নিলুফা সুলতানা জানান, আমি দুদিনের ছুটিতে আছি। নবজাতকটির বিষয়ে হাসপাতাল পরিচালক আমাকে জানিয়েছেন। আমি আমার বিভাগের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জকে এ বিষয়ে জানিয়েছি। তারা সবকিছু দেখছেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর