সারাদেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের পদত্যাগের হিড়িক

সারাদেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের পদত্যাগের হিড়িক

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৫২ ২০ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৫:২৫ ২০ জানুয়ারি ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ফেনীর পরশুরাম উপজেলা ও পৌর বিএনপির কমিটি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। গত কয়েকদিনে অব্যাহত বিক্ষোভ মিছিলের পর দলের ১৪ জন নেতা পদত্যাগ করেছেন।

অন্যদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌর বিএনপির নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের মাঝে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। এরই মধ্যে ওই কমিটি থেকে ৬ জন পদত্যাগ করেছেন। অন্যরাও পদত্যাগের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

জানা গেছে, ফেনী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলালের হাতে পদত্যাগপত্র জমা দেন তারা। সদ্যঘোষিত কমিটিতে ফেনীর বাইরে বসবাসকারীদের কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখার প্রতিবাদে তারা পদত্যাগ করেছেন।

পদত্যাগকারীদের মধ্যে রয়েছেন- উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির আবু নাছের চৌধুরী, যুগ্ম আহ্বায়ক করিমুল হক করিম ও বাহার উদ্দিন সরদার, সদস্য জাফর উল্লাহ, নুরুল করিম চৌধুরী, তাজুল ইসলাম, ওয়াসিমুল শাহাদাত নরশেদ, কবির আহাম্মদ ও মোহাম্মদ, সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবীব এবং সাবেক সদস্য সচিব কবির আহমেদ।

পরশুরাম পৌর বিএনপি থেকে যারা পদত্যাগ করেছেন তারা হলেন- যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজুল হক সিরাজ, সদস্য নাছির উদ্দিন রিটু ও মিজানুর রহমান চৌধুরী।

পদত্যাগকারী হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, উপজেলা ও পৌর কমিটিতে ত্যাগী ও সিনিয়র নেতাদের মূল্যায়ন করা হয়নি। ঢাকা ও চট্টগ্রামে বসবাস করেন এমন নেতাদের নিয়ে কমিটি করা হয়েছে। এই অভিযোগ দলের শতাধিক নেতাকর্মীর। এ কারণে দলের আহ্বায়ক কমিটি থেকে পদত্যাগ করার ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া আরো কয়েকজন নেতা পদত্যাগ করবেন বলেও তিনি জানিয়েছেন।

এছাড়া একই অভিযোগে শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে বিএনপি ছেড়ে জাতীয় পার্টিতে (জাপা) ফিরে গেছেন সিলেটের ব্যবসায়ী কুনু মিয়া। গত বুধবার বনানী কার্যালয়ে জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের হাতে ফুল দিয়ে দলে যোগ দেন তিনি।

কুনু মিয়া গত নির্বাচনে সিলেট-৬ আসনে বিএনপির মনোনয়ন চেয়ে বিফল হন। ২০১১ সালে তিনি খালেদা জিয়ার হাতে ফুল দিয়ে জাপা থেকে বিএনপিতে যোগ দেন।

এদিকে গত ১৩ জানুয়ারি আখাউড়া পৌর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো. জিল্লুর রহমান।

দলের একাধিক ত্যাগী নেতা জানায়, স্বজন প্রীতির মাধ্যমে বহিরাগত, অদক্ষ, অযোগ্য লোক দিয়ে পৌর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির বেশিরভাগ সদস্যদেরই রাজপথে আন্দোলন বা সংগ্রামের সঙ্গে কোনো পরিচিতি নেই। এসব কারণে জেলা আহ্বায়ক কমিটির কাছে পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন বর্তমান কমিটির ৬ সদস্য।

পদত্যাগ করা ওই ৬ সদস্য হলেন- পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি বাহার মিয়া (সাবেক কাউন্সিলর) সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান (কাউন্সিলর), সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মন্তাজ মিয়া (কাউন্সিলর), উপজেলা যুবদলের সাবেক ১ নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম রানা, পৌর বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. দুলাল ভূঁইয়া, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল লতিফ মালদার।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ/এইচএন