২৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট থেকেই বিস্ফোরণ, প্রেসিডেন্টের ক্ষোভ

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

২৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট থেকেই বিস্ফোরণ, প্রেসিডেন্টের ক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৪৩ ৫ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৫৭ ৫ আগস্ট ২০২০

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। ছবি: সংগৃহীত

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। ছবি: সংগৃহীত

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ দুটি বিস্ফোরণের কারণ জানতে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে দেশটির সরকার। তবে লেবাননের উচ্চ প্রতিরক্ষা পরিষদের সভা শেষে জাতীয় নিরাপত্তা প্রধান আব্বাস ইব্রাহিম বলেন, আফ্রিকায় চালান দেয়ার জন্য বৈরুত বন্দরে রাখা হয়েছিল ২ হাজার সাতশ’ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট। সেখান থেকেই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাতেও প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, বন্দরের কাছে অরক্ষিত অবস্থায় সংরক্ষিত থাকা অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট থেকে বিস্ফোরণের সূত্রপাত। বিস্ফোরক দ্রব্যগুলো কেন সেখানে রাখা হয়েছিল তা লেবানিজ কাস্টমস কর্মকর্তাদের কাছে এরইমধ্যে জানতে চাওয়া হয়েছে।

লেবাননের প্রেসিডেন্ট মাইকেল আউন এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ছয় বছর ধরে একটি গুদামে কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট সংরক্ষিত করা ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলেছেন তিনি। এছাড়া দুই সপ্তাহের জন্য জরুরি অবস্থা ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন মাইকেল আউন।

রাষ্ট্রপতির বাসভবনে আয়োজিত জরুরি সভা শেষে প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব জানান, এই বিস্ফোরণের জন্য দায়ীদের চিহ্নিত করতে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে সরকার। পাঁচ দিনের মধ্যে তারা প্রতিবেদন জমা দেবে। হতাহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার আশ্বাসও দেন তিনি।

বিস্ফোরণের পর লেবাননের চেহারাই পরিবর্তন হয়ে গেছে। ঝকঝকে এই শহর মুহূর্তেই ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। আশপাশের এলাকাজুড়ে আগুন জ্বলছে এবং কালো ধোঁয়ার কুণ্ডলী ছড়িয়ে পড়েছে। সড়কে পড়ে আছে বিভিন্ন ভবন আর যানবাহনের ধ্বংসাবশেষ।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ৭৮ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে প্রায় ৪ হাজার মানুষ। আহত অনেকেরই অবস্থা আশঙ্কাজনক। এখনো বহু মানুষ নিখোঁজ রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে