দুঃসময়ে ২৫ হাজার টাকা বকশিশ পেয়ে কাঁদলেন নারী ওয়েটার

দুঃসময়ে ২৫ হাজার টাকা বকশিশ পেয়ে কাঁদলেন নারী ওয়েটার

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২২:০৬ ২৬ জুলাই ২০২০   আপডেট: ২৩:০৩ ২৬ জুলাই ২০২০

বকশিশ পেয়ে কেঁদে ফেলেন নার ওয়েটার।

বকশিশ পেয়ে কেঁদে ফেলেন নার ওয়েটার।

করোনাভাইরাসের তাণ্ডব রুখতে লকডাউনসহ নানা পদক্ষেপ নেয় বিশ্বের অনেক দেশের সরকার। এতে সবচেয়ে ক্ষতির মুখে পড়ে হোটেল, রেস্তোরাঁ ও পাবের শ্রমিকরা। টানা কয়েক মাস বন্ধ থাকার পর সেগুলো খুলতে শুরু করেছে। আর পাব খোলার পরই ২৫ হাজার টাকা বকশিশ পান এক নারী ওয়েটার। এতে রীতিমতো কেঁদে ফেলেন ওই নারী। যার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

সম্প্রতি আমেরিকার ইন্ডিয়ানার একটি পাবেতে এ ঘটনা ঘটেছে।

আমেরিকায় লকডাউনে শিথিলতা আনায় হোটেল, রেস্তোরাঁ, পাব খোলা হচ্ছে। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। ধীরে ধীরে শ্রমিকেরাও কাজে ফিরছেন। তবে মানুষ এসব প্রতিষ্ঠানকে এড়িয়ে চলেছেন। তাই শ্রমিকদের সহায়তা করতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নেন কয়েকজন। তারা নিজের মতো করে সাহায্য করছেন। 

সাধারণত আমেরিকায় রেস্তোরাঁ, হোটেল ও পাবের বিলের ১৫ থেকে ২০ শতাংশ টিপ হিসেবে দেয়ার প্রচলন রয়েছে। কিন্তু এক নারী ক্রেতার কাছ বিলের উপর প্রায় ৯৬৩ শতাংশ বেশি বকশিশ পেলেন পাবে কর্মরত এক নারী ওয়েটার। বকশিশ দেখে ওই নারী ওয়েটার ক্যামেরার সামনেই কেঁদে ফেলেন।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, পাবে আসা ওই নারী ওয়েটারকে ডেকে সামনে বসিয়ে কথা বলছেন। ৩৫ ডলার বিল হয়েছিল। আর ওই ক্রেতা নারী ওয়েটারের হাতে দেন মোট ৩৩০ ডলার। অর্থাৎ ২৯৫ ডলার (যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৫ হাজার ১৭ টাকা) বকশিশ দেন ওই ক্রেতা। সেই ঘটনার অভিব্যক্তি ক্যামেরাবন্দী করার আগে নারী ওয়েটারের অনুমতি নেয়া হয়। তিনি জানতেন না, কী হতে যাচ্ছে। যখন দেখেন এ দুর্দিনে একজন এভাবে সাহায্য করছেন, তিনি নিজের আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। কান্নার পরে ক্রেতাকে জড়িয়ে ধরেন নারী ওয়েটার।

ফেসবুক পোস্টে নারী ওয়েটারের নাম কেটি টেলর বলে জানানো হয়েছে। আর যে নারী তাকে ৯৬৩ শতাংশ বেশি বকশিশ দিয়েছেন তার নাম হিথার হট্রাম। 

>>নারীর কান্নার ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন<<

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ