২১ স্কুলে একযোগে সংরক্ষিত ছুটি

২১ স্কুলে একযোগে সংরক্ষিত ছুটি

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩১ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার ২১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একযোগে সংরক্ষিত ছুটির ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনা এখানেই শেষ নয়, এ ছুটি নিয়ে শিক্ষা কর্মকর্তা ও শিক্ষকদের শিক্ষাসফরে যাওয়ায় শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের মধ্যেও চরম ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

হরিসেনা প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. মিলন খলিফা জানান, তার বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বনভোজনে যাওয়ার জন্য বাধ্যতামূলক ভাবে চাঁদা দিতে হয়েছে। এমনকি স্কুল বন্ধ দিয়ে বনভোজনে যাওয়ার জন্য শিক্ষকদের অনিচ্ছা থাকা সত্বেও শিক্ষকদের সংরক্ষিত ছুটি নিতে বাধ্য করা হয়েছে। 

তিনি আরো জানান, আসছে ২১ ফেব্রুয়ারি হরিসেনা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে। এ নিয়ে বিদ্যালয়ে প্রতিদিনই শিক্ষার্থীদের নাচ, গান, আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কন শেখানো হতো। কিন্তু উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের খামখেয়ালিতে একদিন পিছিয়ে গেল শিক্ষার্থীরা।

বড় কসবা প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলআমিন হাওলাদার জানান, বিদ্যালয় বন্ধ করে বনভোজনে যাওয়ার জন্য নিষেধ করা হলেও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের চাপের মুখে বনভোজনে যেতে বাধ্য হয়েছে শিক্ষকরা। 

তিনি আরো জানান, বনভোজনে যাওয়ার আগে তিনদিন অর্ধবেলা ক্লাস নিয়ে উপজেলায় বনভোজনে যাওয়ার প্রস্তুতি সভায় যেতে হয়েছে শিক্ষকদের। 

এক প্রধান শিক্ষক জানান, স্কুল বন্ধ দিয়ে বনভোজনে যেতে না চাইলেও একপ্রকার জোর করে তার বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ১২০০ টাকা করে চাঁদা দিতে হয়েছে। তবে অনেক শিক্ষকরাই এ বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফয়সল জামিল জানান, বাধ্যতামূলকভাবে কাউকে শিক্ষা সফরে নেয়া হয়নি। যে যেতে চেয়েছে শুধু তাকেই নেয়া হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ