১৭২ দিন পর কবর থেকে তোলা হলো লাশ 

১৭২ দিন পর কবর থেকে তোলা হলো লাশ 

আশুগঞ্জ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:০১ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৮:০৩ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ১৭২ দিন পর কবর থেকে মোরশেদ আলম নামে এক বৃদ্ধের লাশ তোলা হয়েছে।  

বুধবার দুপুরে উপজেলার যাত্রাপুর এলাকার একটি কবরস্থান থেকে লাশ তোলা হয়। এ সময় জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের বড়তল্লা এলাকার একটি পুকুরের মালিকানা রয়েছে মুর্শিদ আলমসহ আরো অন্তত ২০ থেকে ২৫ জনের। গত বছরের ৫ অক্টোবর  ভোরে মাছ ধরা নিয়ে মোর্শেদ মিয়ার সঙ্গে পুকুর ইজারা নেয়া আজাদ, কামাল ও নুরু মিয়া তর্কে লিপ্ত হন ।

এ সময় হঠাৎ করেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন  মুর্শিদ। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে বাজিতপুর জহিরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

এই ঘটনার ১১ দিন পর নিহতের স্ত্রী নাছমিকা বাদী হয়ে একই এলাকার হাজি কুতুব মিয়াকে প্রধান করে পাঁচ জনের নাম উল্লেখ ও আরো ৬-৭জনকে অজ্ঞাত আসামি করে ১৬ অক্টোবর একটি মামলা করেন। 

আদালত মামলাটি প্রথমে পুলিশকে দেয়। পরে সিআইডিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলেন। এরই ধারাবাহিকতায় আদালতে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ তুলতে আবেদন করা হয় সিআইডির পক্ষ থেকে। 

আদালত ১৯ ফেব্রুয়ারি মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য তুলতে আদেশ দেন। পরে আদালতের নির্দেশে বুধবার দুপুরে জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সিআইডি ও পুলিশের উপস্থিতিতে কবর থেকে মরদেহটি তোলা হয়। 

জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত বৈদ্য জানান, আদালতের নির্দেশে মোরশেদ আলমের মরদেহ কবর থেকে তোলে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে