Alexa ১১৯ বছরেও ফজরের নামাজ কাজা করেননি তিনি!

১১৯ বছরেও ফজরের নামাজ কাজা করেননি তিনি!

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৩৯ ১০ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১২:৪৬ ১০ অক্টোবর ২০১৯

সংগৃহীত

সংগৃহীত

জোবেদ আলী কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট ইউপির মেকুরটারী তেলীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। জাতীয় পরিচয় পত্র অনুযায়ী তার বয়স ১১৯ বছর। জোবেদ আলীর বাবা-মা নেই। স্ত্রী ফয়জুন নেছা, তিন ছেলে ও চার মেয়ে নিয়ে তার সংসার।

ছোটবেলা থেকেই তিনি ছিলেন ধর্মভীরু। ১০০ বছর আগে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। তিনি স্বাভাবিকভাবে নিয়মিত পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতসহ বিভিন্ন বই ও পত্রিকা পড়েন।

এ বয়সেও তার বড় ধরনের কোনো রোগ নেই। শরীর এখনো ভাল আছে। ছোট বেলা থেকেই তিনি নিজের বাড়ির উৎপাদিত মাছ, মাংস, দুধ, ডিম, আবাদি বিতরী ধানের ভাত, খাঁটি ঘি, সরিষার তেল, রাসায়নিক সারবিহীন শাক-সবজি নিয়মিত খেতেন।

বৃদ্ধ জোবেদ আলী বলেন, জীবনে কোনো দিন ফজরের নামাজ কাজা করিনি। ১১৯ বছরেও সুস্থ আছি, খালি চোখেই বই ও পত্রিকা পড়ি। ফজরের নামাজের পর কোরআন তেলাওয়াত করি। তাই হয়তো আল্লাহ পাক আমাকে সুস্থ রেখেছেন। এ জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে শুকিয়ার আদায় করি।

জোবেদ আলীর স্বাভাবিক চলাফেরা ও কাজকর্ম মানুষের কাছে ব্যাপক কৌতুহল সৃষ্টি করেছে। এ বয়সেও তিনি খালি চোখে কোরআনসহ পত্রিকা পড়েন। কোনো কাজে বাড়ি থেকে বের হলেই শতবর্ষী এ বৃদ্ধকে এক নজর দেখতে ভিড় করেন সাধারণ মানুষ।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে